শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩

ময়মনসিংহে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০৫ পিএম

ময়মনসিংহে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার (৫ জুন)সকালে উপজেলার বিষ্ণুপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শাহীন মিয়া (২৫) বিষ্ণুপুর গ্রামের আবু তাহেরের পুত্র।

স্থানীয়রা জানায়, ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার আঠারাড়ি ইউনিয়নের ওই গ্রামের আবু তাহেরের চার ছেলে ও এক মেয়ে। তাদের মধ্যে বড় ছেলে শাহিন মিয়া গত চার মাস আগে প্রেম করে বিয়ে করে নেত্রকোনার কালিয়াঝুড়ি উপজেলার খাদিজা নামে এক মেয়েকে। কিন্তু বাড়িতে আনার পরিবারের লোকজন কোনো ভাবে মেনে নিতে চায়নি এই বিয়ে। এ নিয়ে ছোট ভাই মামুনসহ তার মা নুরজাহান বেগম খাদিজাকে নির্যাতন করত। এ অবস্থায় শনিবার দিনভর দুই ভাই ব্যাপক ঝগড়া-বিবাধ করে আসছিল। এক পর্যায়ে গভীর রাতে বসতঘরের লাগোয়ো একটি খড়ের গাদায় আগুন ধরিয়ে দেয় শাহিন। পরে  প্রতিবেশীরা ছুটে এসে আগুন নেভায়। রোববার ভোর থেকে ফের দুই ভাই বিবাধে লিপ্ত হয়।

প্রতিবেশীরা জানায়, আজ সকাল সাড়ে ৭টার দিকে দুই ভাই শাহিন ও মামুনের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হলে মামুন ছুটে গিয়ে ঘর থেকে একটি দা নিয়ে বড় ভাই শাহিনের ওপর হামলা চালায়। এ সময় শাহিন আত্মরক্ষা করতে দৌড় দিলে ফসলি ক্ষেতের আইলে পড়ে যায়। এ সময় মামুন ধারালো দা দিয়ে বড় ভাইয়ের বুক বরাবর উপর্যপুরি কুপিয়ে তার মৃত্যু নিশ্চিত করে দৌড়ে চলে যায়। পরে এলাকবাসী তাকে ধরে ফেলে।

এ ব্যাপারে ঈশ্বরগঞ্জ আঠারবাড়ি তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আল মামুন খন্দকার জানান, লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নিহতের স্ত্রী খাদিজার অভিযোগ, শ্বশুর বাড়িতে আসার পর থেকে কেউ তাঁকে বধূ হিসেবে মেনে নিতে চায়নি। কিন্তু স্বামী তাঁকে ত্যাগ করতে রাজী হয়নি। এ নিয়ে স্বামীর সাথে দেবর মামুন ও পরিবারের অন্য সদস্যদের দ্বন্দ্ব দেখা দেয়। তিনি আরও বলেন, সে তিন মাসের অন্তঃস্বত্বা। এই অবস্থায় এখন তাঁর কী হবে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/এমএইচএম

 

add-sm
Sonali Tissue
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩