শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

‘যেদিকে তাকাই সেদিকেই দুর্নীতি দৃশ্যমান’

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০৫ পিএম

‘যেদিকে তাকাই সেদিকেই দুর্নীতি দৃশ্যমান’

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, দুদকে হাজার হাজার মামলা ডিপ ফ্রিজে পড়ে আছে। অনুসন্ধানের সময় সীমা ৩০ দিন হলেও আমার কাছে ১০ বছর আগের নথিও এসেছে। যা দেখে আমি বিস্মিত।
 
মঙ্গলবার রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে শ্রেষ্ঠ মহানগর, জেলা ও উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সদস্যদের মাঝে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান।
 
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে দুদক চেয়ারম্যানের বক্তব্য উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়, সংসার, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, প্রশাসন যেদিকেই তাকাই সেদিকেই দুর্নীতি দৃশ্যমান। দুর্নীতি দমন কমিশন বিচ্ছিন্ন কোনো দ্বীপ নয়, এখানেও দুর্নীতি রয়েছে। আমি মনে করি সত্য বলাই দুর্নীতি দমনের প্রধান শর্ত। তাই আমি নিঃসংকোচচিত্তে পূর্ববর্তী বক্তাদের সাথে একমত হয়ে বলছি, দুর্নীতি দমন কমিশনে হাজার হাজার মামলা ডিপ ফ্রিজে পড়ে আছে। অনুসন্ধানের সময় সীমা ৩০ দিন হলেও আমার জানামতে একটি মামলাও ৩০ দিনে নিস্পত্তি হয়নি। আমার কাছে ১০ বছর আগেরও নথি এসেছে; দুদকের এ সকল কার্যক্রম দেখে আমি বিস্মিত। তাই বর্তমান কমিশন ঘর থেকেই শুদ্ধি শুরু করেছে। ইতিমধ্যে বিভিন্ন কর্মকর্তাদের কাছে অনুসন্ধান/তদন্ত বিলম্বের জন্য ৮৭৩ টি ব্যাখ্যা চেয়েছি।

ইকবাল মাহমুদ বলেন, আমরা দুর্নীতি পরায়ণদের কাউকেই ছাড় দিতে চাই না। আমরা সর্বস্তরের জনগণকে সঙ্গে নিয়ে দুর্নীতি থেকে দেশকে মুক্ত করতে চাই। আমাদের সকলকে নিজ নিজ কর্মের মাধ্যমে আস্থা ফিরিয়ে আনতে হবে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

add-sm
Sonali Tissue
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩