মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ১১ আশ্বিন ১৪২৪

যে দেশে দুই স্ত্রী না রাখলে জেল

সোনালীনিউজ ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৮ জুন ২০১৭, বুধবার ১০:৩৩ এএম

যে দেশে দুই স্ত্রী না রাখলে জেল

ঢাকা: অন্তত দুটো বিয়ে করতেই হবে। দেশের সব পুরুষের জন্য এমনই ফতোয়া জারি করল এরিট্রিয়া সরকার। নির্দেশ অমান্য করলেই মিলবে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড। এমনকী কোনো স্ত্রী যদি তাঁর স্বামীকে দ্বিতীয় বিয়ে করতে বাধা দেন, শাস্তি হবে তাঁরও। এক কেনিয়ান ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এই ফতোয়ার অনুবাদ ছড়িয়ে পড়তেই রীতিমতো ঝড় উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ফতোয়ায় লেখা আছে, বহুগামিতা নিয়ে ঈশ্বরের আইন মেনে, এবং দেশে পুরুষ কমে যাওয়ার পরিস্থিতি বিবেচনা করে, এরিট্রিয়া সরকারের ধর্ম সংক্রান্ত দফতর এই সিদ্ধান্তগুলি নিয়েছে :

প্রথমত, প্রত্যেক পুরুষ অন্তত দু’জন নারীকে বিয়ে করবেন এবং যে পুরুষ তা করতে অস্বীকার করবেন তাঁকে কঠোর পরিশ্রমসহ যাবজ্জীবন কারাবাস করতে হবে। যে নারী তাঁর স্বামীকে আবার বিয়ে করতে বাধা দেবেন তাঁকেও যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হবে।

আফ্রিকার ছোট্ট দেশ এরিট্রিয়ার জনসংখ্যা চৌষট্টি লাখেরও কিছু কম। এর একদিকে সুদান আর ইথিওপিয়া, একদিকে জিবুটি, একদিকে লোহিত সাগর। ইথিওপিয়ার থেকে আলাদা হয়ে স্বাধীন এরিট্রিয়ার জন্ম হয় ১৯৯৩ সালে। এর পর ১৯৯৮ থেকে ২০০০ পর্যন্ত দু’বছর রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ চলে ইথিওপিয়ার সঙ্গে। যুদ্ধে মারা পড়েছিলেন বহু পুরুষ। সেই থেকেই দেশে নারীর অনুপাতে বেশ কমে যায় পুরুষের সংখ্যা। এই নারী-পুরুষ অনুপাতের যুক্তি দেখিয়েই নাকি সম্প্রতি জারি হয়েছে এই অদ্ভুত ফতোয়া। সূত্র: আনন্দবাজার

সোনালীনিউজ/এইচএআর