সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

রসুন ও মধু একসাথে খাওয়ার উপকারিতা

সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০১ পিএম

রসুন ও মধু একসাথে খাওয়ার উপকারিতা

আপনি কি প্রায়ই অসুস্থ থাকেন? কিংবা কোন কারণ ছাড়াই সবসময় ক্লান্তবোধ করেন? এই লক্ষণগুলো আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল হয়ে যাচ্ছে এটি প্রকাশ করে। সুস্থ জীবনের জন্য একটি দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করার প্রয়োজন।

রসুন এবং মধুর স্বাস্থ্যগুণ সম্পর্কে কম বেশি আমরা সবাই জানি। রসুনের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান শরীরের অভ্যন্তরীণ অ্যান্টিবায়োটিক তৈরি করে। এছাড়া রসুনের অ্যালিসিন উপাদান কোলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে দেয়, রক্তজমাট বাঁধতে সাহায্য করে। এটি দেহে অ্যান্টি-ক্যান্সার এবং অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল প্রভাব ফেলে থাকে।

বিশুদ্ধ মধুতে প্রচুর পরিমাণ  অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, এনজাইম, আয়রন, জিঙ্ক, পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, ম্যাগনেশিয়াম এবং সেলিনিয়াম রয়েছে। রসুন এবং মধুর মিশ্রণ আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। এর স্বাস্থ্যগুণ নীরোগ দীর্ঘজীবন পেতে সাহায্য করে।

যা যা লাগবে:
৩-৪টি রসুনের কোয়া
১ কাপ বিশুদ্ধ মধু
একটি ছোট পাত্র

যেভাবে তৈরি করবে:

১। প্রথমে রসুনের কোয়াগুলোর খোসা ছাড়িয়ে নিন।
২। এবার রসুনের কোয়াগুলো একটি পাত্রে ঢেলে দিন।
৩। রসুনগুলোর মধ্যে অল্প অল্প করে মধু ঢেলে দিন। সম্পূর্ণ পাত্রটি মধু দিয়ে ঢেকে দিন।
৪। তারপর পাত্রটি কিছুদিনের জন্য স্বাভাবিক তাপমাত্রায় অথবা ফ্রিজে রেখে দিন।

স্বাস্থ্য উপকারিতা
১। এই দুটি উপাদান আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে এবং বিভিন্ন রোগের সাথে লড়াই করার শক্তি যুগিয়ে থাকে।
২। রসুন, মধুর মিশ্রণ ধমনীতে জমে থাকা চর্বি কাটাতে সাহায্য করে যা হৃদযন্ত্রে রক্ত চলাচল সচল রাখে।
৩। ঠান্ডাজনিত গলা ব্যথা দূর করতে রসুন মধুর মিশ্রণ বেশ কার্যকর।
৪। ডায়ারিয়া এবং পেটের সমস্যা দূর করতে রসুন মধুর মিশ্রণ খেতে পারেন। এর অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান দেহের ইনফেকশন দূর করে থাকে।
৫। শরীরের বিভিন্ন অংশের ফাঙ্গাল ইনফেকশন দূর করে ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে থাকে এই মিশ্রণটি।

প্রতিদিন আধা চামচ করে দিনে সর্বোচ্চ ছয়বার এটি খেতে পারেন।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩