বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৫ পৌষ ১৪২৫

রাতে প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে ধরা খেলো প্রেমিক!

পাবনা প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৮ মে ২০১৮, শুক্রবার ১২:৪৩ এএম

রাতে প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে ধরা খেলো প্রেমিক!

পাবনা : পাবনার ভাঙ্গুড়ায় কিশোরী প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে যায় নাজমুল হোসেন (১৭) নামের এক কিশোর। এ সময় প্রেমিককে আটক করে পুলিশে দিয়েছে প্রেমিকার পরিবার।

বুধবার (১৬ মে) রাতে ওই কিশোরীর বাবা ভাঙ্গুড়া থানায় নাজমুলের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করার পর তাকে পুলিশে সোপর্দ করে। আটক নাজমুল পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার বিঞ্চপুর গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে।

কিশোরীর পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ভাঙ্গুড়া পৌর সদরের হাসপাতালপাড়ার জহুরুল ইসলামের অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ে জলি খাতুনের সঙ্গে জহুরুলের দেড় বছর ধরে মোবাইল ফোনে পরিচয়ের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। একপর্যায়ে প্রেমিকা জলির আমন্ত্রণে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে জহুরুল ভাঙ্গুড়ায় তার বাড়িতে লুকিয়ে দেখা করতে আসে।

রাত সাড়ে ১১টার দিকে জলির বাবা-মা বিষয়টি টের পেয়ে যায়। পরে আপত্তিকর অবস্থায় জহুরুলকে আটক করে তার বাড়িতে খবর দেয়। পরদিন বুধবার জহুরুলের পিতাসহ পরিবারের অন্যরা এলে স্থানীয় প্রধানদের উপস্থিতিতে দু’পক্ষের সম্মতিতে দুজনের বিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

দিনভর বিয়ের সব আয়োজনও শেষ করা হয়। কিন্তু সন্ধ্যায় বিয়ের আগ মুহূর্তে দেনমোহর নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হলে জহুরুলের পরিবার ছেলেকে বিয়ে না দিয়ে চলে যেতে চায়।

এ সময় কিশোরীর পরিবার এলাকাবাসীর সহায়তায় তাদের আটকে রেখে মেয়েকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে থানায় মামলা করে জহুরুলকে পুলিশে সোপর্দ করে।

এ বিষয়ে ওই কিশোরের বাবা বলেন, ছেলে প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত তারা বিয়ে দেবেন না। প্রয়োজনে তারা মামলা চালিয়ে যাবেন।

এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে ভাঙ্গুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিন কামাল জানান, ‘আটক কিশোরকে বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে এবং কিশোরীর জবানবন্দি ২২ ধারায় রেকর্ডের জন্য ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে পাঠানো হয়েছে।’

সোনালীনিউজ/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue