বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

র‌্যাবের আবেদন নাকচ করল এনবিআর

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৩ পিএম

র‌্যাবের আবেদন নাকচ করল এনবিআর

বিশেষ প্রতিনিধি

প্রচলিত পদ্ধতিতেই ভ্যাট আদায় করবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)৷ ভ্যাট আদায়ে যুক্ত হতে র‌্যাবের প্রস্তাব ‘গ্রহণযোগ্য কিংবা বিবেচনাযোগ্য’ নয় বলে নাকচ করে দিয়েছে সংস্থাটি।

এ প্রসঙ্গে এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ‘বিদ্যমান আইন অনুযায়ী আমরাই ভ্যাট আদায় করবো। এফবিসিসিআই ও অন্যান্য সংস্থার ঘনিষ্ট সহযোগিতার মাধ্যমে প্রচলিত পদ্ধতিতেই ভ্যাট আদায় কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। এ বিষয়ে কোনও প্রকার সন্দেহ কিংবা সংশয়ের অবকাশ নেই।’

তিনি আরও বলেন, প্রচলিত পদ্ধতিতেই ভ্যাট আদায় কার্যক্রম পরিচালনার মাধ্যমে ভ্যাটসহ চলতি ২০১৫-১৬ অর্থবছরের রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা সম্ভব হবে৷

প্রসঙ্গত, এনবিআর দেশের অভ্যন্তরীণ সম্পদের প্রায় ৮৫ শতাংশ আহরণ করে থাকে। এনবিআর ভ্যাট আদায় ও ভ্যাট ফাঁকির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়। ভ্যাট ফাঁকি রোধে ভ্যাট গোয়েন্দা ইউনিট কাজ করে। ভ্যাট আইনের ২৪ ধারায় বলা রয়েছে, চাইলে এনবিআর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহযোগিতা নিতে পারবে।

চলতি বাজেটে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্য ধরা হয়েছে ২ লাখ ১৪ হাজার ২৪৩ কোটি টাকা। এর মধ্যে এনবিআরকে এক লাখ ৮২ হাজার ২৪৪ কোটি টাকা আদায় করতে বলা হয়েছে; যার মধ্যে ৬৪ হাজার ২৬৩ কোটি টাকা আদায় করতে হবে ভ্যাট থেকে।

এর আগে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এনবিআর থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক চিঠিতে বলা হয়, বর্তমানে এনবিআর সুশাসন ও আরও উন্নত ব্যবস্থাপনা নীতির আলোকে একটি করবান্ধব, করদাতা বান্ধব এবং ব্যবসাবান্ধব রাজস্ব প্রশাসন তৈরির জন্য এনবিআরের কর্মকর্তারা কাজ করে যাচ্ছেন৷ ভ্রাম্যমাণ আদালত আইন সংশোধন করে ভ্যাট আদায়ে যুক্ত হতে এনবিআরের কাছে প্রস্তাব দিয়েছিল র‌্যাব।

র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদের পাঠানো ওই প্রস্তাবে নানা অপরাধ দমনে বাহিনীর ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান প্রশংসিত’হওয়ার কথা উল্লেখ করে বলা হয়, মূল্য সংযোজন কর আইন, ১৯৯১ মোবাইল কোর্ট আইনের তফসিলে অন্তর্ভুক্ত না হওয়ায় ওই আইনে হওয়া অপরাধের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করা সম্ভব হচ্ছে না। ফলে একদিকে যেমন ভ্যাট ফাঁকির প্রবণতা বাড়ছে, অন্যদিকে সরকার কাঙ্ক্ষিত রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এবিষয় বিবেচনা করে মূল্য সংযোজন কর আইনকে মোবাইল কোর্ট আইন-২০০৯ এর তফসিলভুক্ত করার প্রস্তাব দেয় র‌্যাব। এই আবেদন গৃহীত হলে তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালত ভ্যাট ফাঁকির বিরুদ্ধেও অভিযান চালাতে পারতো।

সোনালীনিউজ/এমএইউ

add-sm
Sonali Tissue
বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩