মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই, ২০১৮, ১ শ্রাবণ ১৪২৫

শোবিজে সংসার ভেঙে আলোচনায় যারা 

বাবুল হৃদয় | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭, রবিবার ০১:১৬ পিএম

শোবিজে সংসার ভেঙে আলোচনায় যারা 

ঢাকা: ভালোলাগা দিয়ে শুরু হয় নতুন সম্পর্ক। এরপর আস্তে আস্তে প্রেম। সেই প্রেম থেকে বিয়ে, সংসার। মধুর এই সংসারে থাকে অসংখ্য স্মৃতি। হাসি, খেলা, আনন্দ, উচ্ছ্বাস- সবকিছুর পরেও থাকে বিরহের সুর। আর সেই সুরের নাম ‘বিচ্ছেদ’। তবে সাধারণ মানুষের বিবাহবিচ্ছেদের খবর খুব একটা জানাজানি হয় না। কিন্তু তারকাদের বিচ্ছেদের খবর ছড়িয়ে যায় মুহূর্তের মধ্যে। তাঁদের বিচ্ছেদ নিয়ে কৌতুহলেরও শেষ নেই। বিদায় হতে যাওয়া বছরটিতে বড় পর্দা, ছোট পর্দা বা  সঙ্গীতাঙ্গনের বিবাহ বিচ্ছেদ ছিল চোখে পড়ার মতো। শোবিজের আলোচিত সাত বিচ্ছেদ নিয়ে এই প্রতিবেদন।

শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস:

বিচ্ছেদের খবরে সবচেয়ে আলোচনায় ছিল তারকাজুটি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস। বছর জুড়েই ভাঙনের সুর বেজেছে শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের মধ্যে। বিবাহিত এই তারকা দম্পতির বিচ্ছেদ হয়নি ঠিকই, তবে সেটা এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। ডিভোর্সের কাগজ শাকিব পাঠিয়েছেন অপুর কাছে। তিন মাস পেরুলেই, ভিন্ন কিছু না ঘটলে, কার্যকর হবে এই বিচ্ছেদ। শাকিব ঘর ভাঙার ব্যাপারে শতভাগ প্রস্তুত থাকলেও, অপু বরাবরই বলছেন তিনি শাকিবের সঙ্গে সংসার করতে চান। বিষয়টি এখন নির্ভর করছে শাকিব ও তাঁর পরিবারের ওপর। তবে সংশ্লিষ্ট অনেকেরই ধারণা শাকিব-অপুর নয় বছরের সংসার শেষ পর্যন্ত ভাঙবেই।

হাবিব ওয়াহিদ, রেহান ও তানজীন তিশা:

এ বছরের শুরুতেই নিজেদের মধ্যে বিচ্ছেদ ঘটান সঙ্গীতশিল্পী হাবিব ওয়াহিদ ও রেহান। এ দম্পতির ঘরে একটি ফুটফুটে ছেলে রয়েছে। বিচ্ছেদের পর শোনা যায় হাবিবের সঙ্গে তানজীন তিশার সম্পর্কের জের ধরেই ঘর ভেঙেছে তাঁদের। তবে তিশার সঙ্গেও হাবিবের সম্পর্ক যে খুব মসৃণ চলছে তা নয়। তিশা বরাবরই বলে আসছেন, হাবিবের সংসার ভাঙার পেছনে তার কোনো হাত নেই।

তাহসান ও মিথিলা:

ভক্তদের কাছে সুখী দম্পতি হিসেবেই পরিচিত তাহসান ও মিথিলা। গায়ক ও ছোট পর্দার নায়ক তাহসানের সঙ্গে মডেল ও অভিনেত্রী মিথিলার বিচ্ছেদও ঘটে এবছরই। পর্দায় ও পর্দার বাইরে রোমান্টিক এ জুটি ভেঙে যাওয়ার পর অনেক ভক্তেরও হৃদয় ভেঙেছে। ১১ বছর তাঁরা একসঙ্গে সংসার করেছেন। আয়রা নামের একটি কন্যাসন্তানও রয়েছে তাদের। কিন্তু বনিবনা না হওয়ায় তাহসান ও মিথিলা দুজনই তাদের ডিভোর্সের বিষয়টি মিডিয়াকে জানান। তাহসান ও মিথিলা ভক্তরা তাদের বিচ্ছেদের খবর শোনার পর ফেসবুকে গ্রুপ খোলেন ‘তাহসান-মিথিলার ডিভোর্স চাই না’ শিরোনামে। ভক্তদের অনুরোধ উপেক্ষা করে বিচ্ছিন্ন জীবন নিয়ে ভালোই আছেন এই দুই তারকা।

নিলয় ও শখ:

মডেলিং করতে গিয়ে পরিচয় নিলয় ও শখের। কাজ করতে গিয়েই একে অপরের প্রতি ভালোলাগা। এরপর আবার মান অভিমানে দূরে চলে যাওয়া। মান ভাঙ্গলে ফের প্রেম অতঃপর বিয়ে। কিন্তু স্থায়িত্ব পায়নি তাদের সম্পর্ক। ২০১৫ সালের ৭ জানুয়ারি ১০ লাখ টাকা দেনমোহরে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তারা। চলতি বছর ডিভোর্স হয় তাদের। যদিও কেউ কারও বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ করেননি। গোপন রেখেছেন বিচ্ছেদের কারণ।

স্পর্শিয়া ও রাফসান:

দীর্ঘদিন ধরেই এক ছেলের সঙ্গে প্রেম করে আসছিলেন স্পর্শিয়া। পরে সম্পর্ক ভাঙ্গে তাদের। দীর্ঘ দিনের এ প্রেম ভেঙ্গে যাওয়ার পর জিদের বসেই নির্মাতা রাফসানকে বিয়ে করেন অভিনেত্রী অর্চিতা স্পর্শিয়া । রাফসানের সঙ্গে টেকেনি সংসার। স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি বেকার, কাজ করার কোনো ইচ্ছাও নাকি তাঁর নেই। এছাড়াও রয়েছে আরো অনেক অভিযোগ। তাই বাধ্য হয়ে আনুষ্ঠানিক বিচ্ছেদের পথে হাঁটেন স্পর্শিয়া।

নোভা ও মোহন খান:

অভিনেত্রী নোভা ও নির্মাতা মোহন খানের বিচ্ছেদটাও এ বছর হয়েছে। দেড় বছর প্রেম করে ২০১১ সালের ১১ নভেম্বর বিয়ে করেছিলেন তারা। ছয় বছর সংসার করার পর চলতি বছর ২৬ আগস্ট ঢাকা জজকোর্ট কাজী অফিসে পরস্পরকে ডিভোর্স দেন তাঁরা।

মিলা ও পারভেজ:

একাধিক নারীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িত এমন আরও অভিযোগ এনে পারভেজ সানজারকে ডিভোর্স দেন মিলা। সেপ্টেম্বর মাসে পপ গায়িকা মিলার ডিভোর্স হয়েছে বলে গুজব ছড়িয়ে পড়ে। কিন্তু সে সময় এ খবরকে ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দেন তিনি। অবশেষে সেই গুজবই সত্যি হলো। ৬ অক্টোবর দিবাগত রাত ৩টার দিকে মিলা তার ফেসবুক ভেরিফায়েড ফ্যান পেজে ডিভোর্সের বিষয়টি জানিয়ে একটি স্ট্যাটাস দেন। পারভেজের সঙ্গে ১০ বছর প্রেম করার পর বিয়ে করেছিলেন মিলা। কিন্তু বিয়ের মাত্র ১৩ দিনের মাথায় জানতে পারেন তাঁর স্বামী একাধিক নারীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িত, তাই তাঁকে ডিভোর্স দেন মিলা।

সোনালীনিউজ/বিএইচ/জেএ