সোমবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ৮ ফাল্গুন ১৪২৩

সাইকেল চালানোর ৫টি অসাধারণ উপকারিতা

আপডেট: ১৫ জুন ২০১৬, বুধবার ১২:০৯ পিএম

সাইকেল চালানোর ৫টি অসাধারণ উপকারিতা

সোনালীনিউজ ডেস্ক
আনন্দের জন্যই হোক কিংবা কাজের তাগিদে, সাইকেল চালানো শরীরের জন্য বেশ উপকারী। নিয়মিত সাইকেল চালালে খুব ভালো ব্যায়াম হয়। আসুন, জেনে নিই এই
শরীরচর্চার নানা উপকারিতা:
নিয়মিত সাইকেল চালালে ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে। একজন ৮০ কেজি ওজনের ব্যক্তি এক ঘণ্টা সাইকেল চালানোর মাধ্যমে প্রায় ৬৫০ ক্যালরি ক্ষয় করতে পারেন, যা ধীরে ধীরে ওজন কমাতে সাহায্য করবে।

শারীরিক পরিশ্রমের অভাবে হৃদ্রোগ, ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি বাড়ে। কর্মক্ষেত্রে বা বাড়িতে হাঁটাচলা কিংবা পরিশ্রম যাঁদের কম হয়, সারা দিন বসে কাজ করতে যাঁরা বাধ্য হন, দিনশেষে একটু সাইকেল চালনা তাঁদের সেই অভাব পূরণ করবে। হৃদ্যন্ত্রের ফিটনেস বাড়াতে বিশেষজ্ঞরা সপ্তাহে অন্তত ১৫০ মিনিট সাইকেল চালানোর পরামর্শ দিচ্ছেন। এটা হাঁটা বা জগিং করার মতো অ্যারোবিক ব্যায়াম, যা হৃদ্যন্ত্র ও ফুসফুসের কার্যক্ষমতা বাড়ায়।

হাড়ের জোড়া বা সন্ধির ব্যথা কমাতেও সাইকেল চালানো উপকারী। সাইকেল চালালে হাঁটুর ব্যথা কমে। তা ছাড়া এই অভ্যাসের ফলে পায়ের মাংসপেশির শক্তি ও নমনীয়তা বাড়ে।

মনোযোগ বাড়ানো ও লক্ষ্য স্থির করার মতো মানসিক গুণ তৈরিতে সাইকেল চালানো ইতিবাচক ভূমিকা রাখে বলে প্রমাণ রয়েছে। নিয়মিত সাইক্লিং করলে মানসিক অবসাদ বা বিষণ্নতা দূরে থাকে।

সাইকেল চালানোর জন্য পর্যাপ্ত জায়গা এবং সুবিধা না থাকলে বাড়িতে বা ব্যায়ামাগারে স্থির সাইকেলের সাহায্যে শরীরচর্চা করতে পারেন। এতেও সমান উপকার পাওয়া যায়।

লেখক, অধ্যাপক শামসুন নাহার, চেয়ারম্যান, ফিজিক্যাল মেডিসিন ও রিহ্যাবিলিটেশন বিভাগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

Sonali Bazar
add-sm
Sonali Tissue
সোমবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ৮ ফাল্গুন ১৪২৩