শনিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৭, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

সিঙ্গাপুরে বন্ড ছেড়ে অর্থ সংগ্রহ করতে আগ্রহী সরকার

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৩৪ পিএম

সিঙ্গাপুরে বন্ড ছেড়ে অর্থ সংগ্রহ করতে আগ্রহী সরকার

সোনালীনিউজ ডেস্ক
সিঙ্গাপুরে বা গ্লোবাল মার্কেটে বন্ড ছেড়ে জ্বালানী ও বিদ্যুৎ খাতের কোম্পানিগুলোর জন্য অর্থ সংগ্রহে আগ্রহী সরকার। রবিবার আয়োজিত এক সেমিনারে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু সরকারের এ আগ্রহের কথা জানান।

তিনি বলেন, সিঙ্গাপুরে বিভিন্ন দেশের বড় বিনিয়োগকারী রয়েছে এবং এটি একটি জ্ঞানসম্পন্ন মার্কেট। এ মর্কেটে বন্ড ছেড়ে অর্থ সংগ্রহের প্রক্রিয়া সহজ ও লাভজনক। এ কারণে দেশটিতে আমরা বন্ড ছাড়তে চাচ্ছি। এটি করতে পারলে বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে বিদেশী বিনিয়োগের পরিমাণ বাড়বে। তখন আর বিদেশী বিনিয়োগকারীদের টেনে আনতে হবে না।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, বর্তমান মার্কেট অনুকূলে আছে, ক্লাইমেট ভালো, রেটিং ভালো আছে। তাই এখনই সিঙ্গাপুরের মার্কেটে বন্ড তালিকাভুক্ত করানো উচিত। এ ছাড়া বিদ্যুৎ কোম্পানিগেুলোর আকার বড় ও স্বচ্ছ করতে তালিকাভুক্ত করানো উচিত। কারণ তালিকাভুক্ত করানো হলে কোম্পানিগুলো বিভিন্ন ধরনের জবাবদিহিতার আওতায় আসতে হবে।

রাজধানীর বিদ্যুৎ ভবনে আয়োজিত ‘সিঙ্গাপুরে বন্ড তালিকাভুক্তির প্রক্রিয়া’ শীর্ষক এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। যৌথভাবে এ সেমিনারের আয়োজন করে বাংলাদেশ এনার্জি অ্যান্ড পাওয়ার রিসার্চ কাউন্সিল এবং ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)।

সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যুৎ সচিব মনোয়ার ইসলাম। এ ছাড়া ডিএসই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. স্বপন কুমার বালা, পরিচালক শাকিল রিজভী, মনোয়ারা হাকিম আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সিঙ্গাপুরের ল ফার্ম ড্রিউ অ্যান্ড নেপায়ারের করপোরেট ও ফাইন্যান্স ডিরেক্টর ফারহানা সিদ্দিকী।

প্রবন্ধে তিনি সিঙ্গাপুরে তালিকাভুক্তির প্রক্রিয়া, সম্প্রতি তালিকাভুক্ত হওয়া বিভিন্ন দেশের উদাহরণ তুলে ধরেন। সিঙ্গাপুরে ২০১৫ সালে ব্যাংক অব ইন্ডিয়া, দ্য ডেমোক্রেটিক সোশ্যালিস্ট রিপাবলিক অব শ্রীলংকা, কোরিয়া ন্যাশনাল অয়েল করপোরেশন তালিকাভুক্ত হয়েছে বলে জানান তিনি।

সোনালীনিউজ/ঢাকা