রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩

সিরিয়া যুদ্ধে সেনা পাঠাতে শুরু করেছে সৌদি

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৩৪ পিএম

সিরিয়া যুদ্ধে সেনা পাঠাতে শুরু করেছে সৌদি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সিরিয়াতে স্থল অভিযান চালানোর লক্ষ্যে তুরস্কের ‘ইনকিরলিক’ সেনা ঘাঁটিতে সৈন্য পাঠাতে শুরু করেছে সৌদি আরব। সেই সাথে বিমান ঘাঁটিটিতে জড়ো করা হচ্ছে সৌদি আরবের জঙ্গি বিমানও। ব্রিটিশ গণমাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্ট জানায়, সৌদি আরব এবং তুরস্ক যৌথভাবে তুর্কি ভূখণ্ড থেকে সিরিয়াতে স্থল হামলার পরিকল্পনা করছে।  

এদিকে তুর্কি গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে সেনা মোতায়েনের খবর নিশ্চিত করেছে তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু। সিরিয়াতে সংঘাত নিরসনের লক্ষ্যে একটি সাময়িক যুদ্ধবিরতি কার্যকর হতে যাওয়ার কয়েকদিনে আগেই সেনা মোতায়েনের এ ঘটনা ঘটল।

মেভলুত কাভুসোগলু তার বিবৃতিতে বলেন, ‘সৌদি আরব দায়েশের (আইএস) বিরুদ্ধে তাদের প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে। তারা বলেছে, যুদ্ধে জঙ্গি বিমান এবং স্থল সেনা- উভয়টিই পাঠাতে প্রস্তুত রয়েছে তারা।’

তিনি আরো বলেন, ‘দায়েশকে হটাতে প্রতিটি যৌথ বৈঠকে আমরা একটি ব্যাপক এবং ফলপ্রসূ কৌশলের প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দিয়েছি। দুই দেশই এ কৌশলে সম্মত হলে তুরস্ক এবং সৌদি আরব তুর্কি ভূখণ্ড থেকে সিরিয়াতে অভিযান চালাতে পারে।’

সিরীয় সীমান্তের কাছে আদানা শহরের ইনকিরলিক সেনা ঘাঁটিতে সৈন্য এবং জঙ্গি বিমান প্রেরণের খবর নিশ্চিত করলেও তাদের সংখ্যা প্রকাশ করেননি কাভুসোগলু।

এদিকে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ আসাদকে ক্ষমতায় থাকতে সহায়তা করবে না বলে শনিবার এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল-জুবায়ের। একটি জার্মান গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘ভবিষ্যতে কোনো বাশার আল-আসাদ থাকবে না।’

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার জার্মান গণমাধ্যম হান্ডেলসব্লাটকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে রুশ প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদ জানিয়েছিলেন, সিরিয়ার যুদ্ধে বিদেশি স্থল সেনা প্রেরণ তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ ডেকে আনতে পারে। এর আগে জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) বিরুদ্ধে লড়াই করতে সিরিয়াতে স্থল সেনা পাঠাতে সৌদি আরব প্রস্তুত বলে চলতি মাসের পাঁচ তারিখে এক ঘোষণা দিয়েছিল দেশটি। এর পর একই ঘোষণা দেয় সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইন।

সিরিয়ায় সেনা পাঠানোর বিষয়ে সৌদি আরবের প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। তবে এতে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে সিরিয়া ও তার মিত্ররা। সৌদি আরবের ঘোষণার প্রতিক্রিয়ায় সিরীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়ালিদ আল-মুয়াল্লেম বলেন, সিরিয়াতে কেউ সেনা পাঠালে তাদের কফিনে ফেরত পাঠানো হবে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

add-sm
Sonali Tissue
রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩