রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫

সেই বাটলারের হাতেই ধরা খেল মুম্বাই

ক্রীড়া ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৪ মে ২০১৮, সোমবার ০২:০৪ পিএম

সেই বাটলারের হাতেই ধরা খেল মুম্বাই

ঢাকা : একটা মাত্র সিদ্ধান্ত বদলে দিয়েছে রাজস্থান রয়্যালসের আইপিএল-ভাগ্য। সেটি হলো জস বাটলারকে দিয়ে ইনিংস ওপেন করানো। দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের বিরুদ্ধে বৃষ্টির কারণে মাত্র ছয় ওভার ব্যাট করার সুযোগ পেয়েছিল রাজস্থান। সেই ম্যাচে বাটলারকে দিয়ে ওপেন করায় তারা। ওই একটা সিদ্ধান্ত বদলে দিয়েছে বাটলার এবং রাজস্থানের ভাগ্য। ওপেন করার পরে পরপর পাঁচটা ম্যাচে ফিফটি করলেন বাটলার। যা আইপিএলে একমাত্র করেছেন বিরেন্দ্র শেবাগ। যার মধ্যে সম্ভবত সেরা ইনিংসটা বাটলার খেললেন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে।

বাটলারের ৫৩ বলে অপরাজিত ৯৪ রানের ইনিংসের সামনে রোববার মুম্বাই হেরে গেল ৭ উইকেটে। প্রথমে ব্যাট করে মুম্বাই তোলে ছয় উইকেটে ১৬৮। দু’ওভার বাকি থাকতে ম্যাচ জিতে যায় রাজস্থান। এই ম্যাচ হেরে প্লে-অফের দৌড়ে অনেকটাই পিছিয়ে পড়ল রোহিত শর্মার দল।

বাটলারের এই ইনিংস যেমন রাজস্থানকে প্লে-অফের দৌড়ে রেখে দিল, তেমনি কলকাতা নাইট রাইডার্সের অঙ্কটাও সরল করে দিল। কেকেআরকে এখন আর নেট রানরেটের ব্যাপারটা মাথায় না রাখলেও চলবে। শেষ দু’টো ম্যাচে (রাজস্থান ও হায়দরাবাদ) জিতলেই ১৬ পয়েন্ট নিয়ে প্লে-অফে চলে যাবেন নাইটরা। কলকাতার কাছে রাজস্থান হেরে গেলে তাদের পক্ষে ১৬ পয়েন্ট পাওয়া আর সম্ভব হবে না। মুম্বাই বা বেঙ্গালুরুর পক্ষে তো নয়ই। তবে কেকেআরকে মাথায় রাখতে হবে একটা ব্যাপার। ইডেনে মঙ্গলবার  তাদের সামলাতে হবে এই বিধ্বংসী ছন্দে থাকা বাটলারকেই। যিনি ওপেন করার পরে শেষ পাঁচ ইনিংসে করলেন ২৬ বলে ৬৭, ৩৯ বলে ৫১, ৫৮ বলে ৮২, ৬০ বলে ৯৫ এবং রোববার ৫৩ বলে ৯৪।

কেকেআর যদি পরের দু’টো ম্যাচের একটাতে হেরেও যায়, তা হলেও প্লে-অফের লড়াইয়ে থাকবে। সে ক্ষেত্রে ১৪ পয়েন্ট নিয়েও প্লে-অফে যেতে পারে তারা। তখন অবশ্য নেট রানরেটের অঙ্ক সামনে চলে আসবে।  এই হিসেবে মুম্বাইয়ের সুযোগ থাকবে যদি তারা পরের ম্যাচগুলো জিততে পারে।

সোনালীনিউজ/আরআইবি/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue