রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

স্বামীর বাড়িতে গৃহবধূর অনশন

আপডেট: ১৫ জুন ২০১৬, বুধবার ১২:০৯ পিএম

স্বামীর বাড়িতে গৃহবধূর অনশন

জামালপুর প্রতিনিধি
অধিকার ফিরে পেতে জামালপুরের বকশীগঞ্জে স্বামীর বাড়িতে অনশন করেছেন রিদিকা বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূ। অবশ্য এজন্য তাকে স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজনদের হাতে দফায় দফায় মারপিটের শিকার হতে হয়েছে।

রোববার দিনভর বকশীগঞ্জ উপজেলা নিলাক্ষিয়া ইউনিয়নের নতুনপাড়া গ্রামে স্বমী বধু মিয়া বাড়িতে অনশন করেন রিদিকা বেগম।

এলাকাবাসী জানান, প্রায় এক যুগ আগে উপজেলার নিলাক্ষিয়া ইউনিয়নের নতুনপাড়া গ্রামের নূর ইসলামের ছেলে বধু মিয়ার সঙ্গে শ্রীবরদী উপজেলার তাঁতীহাটি ইউনিয়নের সাটকাটা গ্রামের লাল মিয়ার মেয়ে রিদিকার বিয়ে হয়। বিয়ের এক যুগ পরে এক মাস আগে শ্বশুড় নূর ইসলাম ও স্বামী বধু মিয়া স্ত্রী রিদিকা বেগমকে যৌতুকের জন্য মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন। নিযার্তন সহ্য করতে না পেরে বাধ্য হয়ে রিদিকা বেগম বাবার বাড়ি আশ্রয় নেন।

রোববার সকাল ১০টায় হঠাৎ রিদিকা বেগম তার দুই সন্তানকে নিয়ে স্বামীর বাড়িতে হাজির হন। তবে বধু মিয়া তাকে জানিয়ে দেন সে এখন আর তার স্ত্রী নেই। তাকে আদালতের মাধ্যমে তালাক দেয়া হয়েছে। এ সময় রিদিকা বেগম তালাকনামার কাগজ দেখতে চাইলে বধু মিয়া তাকে মারপিট করে ঘর থেকে বের করে দেন। এরপরও বাড়ি থেকে তিনি না যাওয়ায় দেবর রোকন মিয়া ও তার স্ত্রী বাসনা বেগম, রিপন মিয়া ও শান্তি বেগম তাকে বেধড়ক মারপিট করেন। দফায় দফায় মারধরের ফলে অসুস্থ হয়ে পড়েন রিদিকা বেগম।

সন্ধ্যায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত রিদিকা বেগম অনশন অব্যাহত রেখেছেন বলে প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাছিনুর রহমান জানান, রিদিকা বেগমের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

add-sm
Sonali Tissue
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩