বুধবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ৭ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫

হংকং দেয়া ১১৭ রান তুলতে কত ওভার খেলতে চায় পাকিস্তান

ক্রীড়া ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, রবিবার ০৮:৪৮ পিএম

হংকং দেয়া ১১৭ রান তুলতে কত ওভার খেলতে চায় পাকিস্তান

ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: পাকিস্তানি বোলারদের তোপের মুখে এশিয়া কাপের ১৪তম আসরের দ্বিতীয় ম্যাচে ৩৭.১ ওভারে ১১৬ রানেই  গুটিয়ে গেছে হংকং। ফলে সরফরাজ আহমেদের দলের জন্য জয়ের লক্ষ্য দাঁড়িয়েছে ১১৭ রান। এখন দেখার বিষয় এই রান তুলতে কত ওভার খেলতে হয় পাকিস্তান দলকে।  

রোববার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে  পাকিস্তানের বিপক্ষে টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় আইসিসির সহযোগী সদস্য দেশ হংকং। ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ওপেনার নিজাকাত খানের উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়েছে হংকং ক্রিকেট দল। দলীয় ১৭ রানে রান আউটের শিকার হন ওপেনার নিজাকাত খান। সাজঘরে ফেরার আগে ১১ বলে করেছেন ১৩ রান।

দলীয় ৩২ রানে ফিরে গেলেন হংকংয়ের অধিনায়ক অংশুমান রাথও। দুই ওপেনারকে সাজঘরে ফিরিয়ে হংকংকে এক ঘরে করে রেখেছে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। ফাহিম আশরাফের বলে খোঁচা দিতে গিয়ে উইকেটকিপার সরফরাজ আহমেদের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন হংকং অধিনায়ক অংশুমান রাথ। বোলিং এসেই ঝড় তোলেন শাদাব খান। পাকিস্তানের এই লেগ স্পিনার ইনিংসের ১৭তম ওভারে বল করতে এসেই বাবর হায়াত এবং এহসান খানের উইকেট তুলে নেন।

৪৪ রানে প্রথম সারির ৫ ব্যাটসম্যানের উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে পড়া দলকে খেলায় ফেরান কিঞ্চত শাহ ও আজিজ খান। ষষ্ঠ উইকেটে তারা ৫৩ বলে ৫২ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েছেন। ব্যাটিং বিপর্যয়ের দিনে দলের হাল ধরেন কিঞ্চিত শাহ। তার ব্যাটে ভর করেই একশ রানের গণ্ডি পার হয় হংকং। যে কিঞ্চিত দলের ভরসা ছিলেন, তাকেই সাজঘরে ফেরান পাকিস্তানের হাসান আলী। সাজঘরে ফেরার আগে দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫০ বল খেলে ২৬ রান করেন কিঞ্চিত শাহ।

৩১তম ওভারের দ্বিতীয় বলে আজিজ খানের স্টাম্প ভেঙে দেন উসমান। সাজঘরে ফেরার আগে ৪৭ বলে ২৭ রান করেন আজিজ। ওভারের পঞ্চম বলে স্কট ম্যাককেনিকে এলিবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন। আর শেষ বলে তানভির আফজালকে বোল্ড করে সাজঘরে ফেরান বাঁ-হাতি পেস বোলার উসমান খান। শেষ পর্যন্ত ৩৭.১ ওভারে ১১৬ রানেই থেমে যায় হংকংয়ের স্কোর বোর্ড।

চলতি বছর ওয়ানডে মর্যাদা হারানো দেশটি নাটকীয়ভাবে বাছাইপর্ব পেরিয়ে জায়গা করে নিয়েছে এশিয়া কাপে। এশিয়া কাপের বড় মঞ্চটা তাদের জন্য সামর্থ্যরে প্রমাণ দেখানোর সুযোগ। তবে কাজটা মোটেও সহজ হবে না। এ-গ্রুপে দুই পরাশক্তি ভারত ও পাকিস্তানের সঙ্গে লড়তে হবে তাদের। এবারের আসরেই ফেভারিট ভাবা হচ্ছে পাকিস্তানকে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/জেডআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue