বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

হাদিসে নারীর আল্লাহভীতি

সোনালীনিউজ ডেস্ক
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০৫ পিএম

হাদিসে নারীর আল্লাহভীতি

তাকওয়া বা আল্লাহর ভয় হলো অন্তরের বিষয়। আল্লাহর ভয় যাদের অন্তরে থাকে, আল্লাহ তাদের সকল বিপদ-আপদে জামিনদার হয়ে যান। হাদিসে বনি ইসরাইলের ধনাঢ্য ব্যক্তি কিফল ও এক মহিয়সী নারীর আল্লাহভীতির একটি বাস্তব ঘটনা উঠে এসেছে। যা রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম একাধিকবার বর্ণনা করেছেন-

হজরত আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, এক-দুইবার বা পাঁচ-সাতবার নয়; বরং এর চেয়েও অধিকবার আমি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে বলতে শুনেছি যে, বনি ইসরাইলের মধ্যে ‘কিফল’ নামে এক ধনাঢ্য ব্যক্তি ছিল। সে কোনো গোনাহের কাজই ছাড়ত না।

একবার এক (অভাবি) মহিলা তার কাছে (সাহায্যের জন্য) আসে; সে ঐ মহিলাকে ব্যভিচারের শর্তে ষাট দিনার (স্বর্ণমুদ্রা) দিতে সম্মত হয়। (মহিলাটি নিরুপায় হয়ে তার প্রস্তাবে সম্মত হয়ে যায়) অতপর কিফল যখন (নির্জনে) ঐ মহিলার সাথে তার শর্ত পূরণে (ব্যভিচারে) উদ্যত হয়; তখন মহিলাটি (আল্লাহর ভয়ে) প্রকম্পিত হয়ে কেঁদে ফেলে।

লোকটি (কিফল) বললো (তুমি) কাঁদছ কেন? তোমার সঙ্গে কি আমি জবরদস্তি করছি? মহিলা বললো, না; তবে এ গোনাহের (ব্যভিচারের) কাজ আমি কখনো করিনি। আজ শুধু অভাবের তাড়নায় এ কাজে (তোমার কথায়) সম্মত হতে বাধ্য হয়েছি।

লোকটি বললো, অভাবের কারণে এসেছ! অথচ কখনো তা (ব্যভিচার) করনি? যাও, তোমাকে ছেড়ে দিলাম। দিনারগুলোও (স্বর্ণমুদ্রাগুলোও) তোমারই।

সে আরো বলল, আল্লাহর কসম! ভবিষ্যতে আমি কখনো আল্লাহর নাফরমানি করবো না। সে রাতেই কিফল মারা যায়। সকালে তার ঘরের দরজায় একটি লিখা পাওয়া যায়, তাতে লেখা ছিল-
أن الله قد غفر للكفل
অর্থাৎ আল্লাহ তাআলা কিফলকে ক্ষমা করে দিয়েছেন। (তিরমিজি)

এ হাদিসের শিক্ষা
ক. আল্লাহর ভয় গোনাহ পরিহারে বিবেককে জাগ্রত রাখে।
খ. গোপনে ও নির্জনে আল্লাহকে বেশি ভয় করা। কেননা নির্জনতায় গোনাহের অবস্থা মানুষের জানার ভয় থাকে না বিধায় মানুষ নিশ্চিন্তভাবে গোনাহে লিপ্ত হয়ে পড়ে। সুতরাং নির্জনে ‘আল্লাহর ভয়-ই’ মানুষকে গোনাহ থেকে হিফাজত করে।
গ. চরম অর্থাভাব ও অভাব-অনটনেও হারাম কাজে লিপ্ত না হওয়া।

পরিশেষে...
আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহর সকল নারীদের সাথে সাথে পুরুষদেরকেও তাকওয়ার অধিকারী হওয়ার (আল্লাহর ভয় অর্জন করার) তাওফিক দান করুন। আমিন।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩