রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭, ৪ ভাদ্র ১৪২৪

‘২৬ দেশে ২৮ দূতাবাস চালু করা হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০৫ পিএম

‘২৬ দেশে ২৮ দূতাবাস চালু করা হবে’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেছেন, নতুন করে ২৬টি দেশে ২৮টি দূতাবাস চালু করা হবে। সোমবার জাতীয় সংসদে সাংসদ আলী আজমের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, প্রথম পর্যায়ে ৭টি, ২য় পর্যায়ে ১০টি ও ৩য় পর্যায় ১১টি দূতাবাস করা হবে। ২০১৬ থেকে ২০২৪ সাল পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে জমি কিনে ভবন নির্মাণ করার পরিকল্পনা রয়েছে। এছাড়া জমিসহ তৈরি ভবন ক্রয়ের সিদ্ধান্ত আমাদের রয়েছে। এ লক্ষ্যে মিশনসমূহকে তিনটি পর্যায়ে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

তিনি জানান, বর্তমানে পৃথিবীর মোট ৫৬টি দেশে বাংলাদেশের ৭২টি দূতাবাস, কনস্যুলেট, উপ-হাইকমিশন রয়েছে। এর মধ্যে ৭টি দেশে অবস্থিত ৯টি দূতাবাস নিজস্ব জমিতে কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

দূতাবাসগুলো হলো- চীনের বেইজিং, বেলজিয়ামের ব্রাসেলস, ভারতের নয়াদিল্লি ও কলকাতা, যুক্তরাজ্যের লন্ডন, জাপানের টোকিও, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রিটোরিয়া, যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসি এবং নিউইয়র্ক (স্থায়ী মিশন রয়েছে)।

আবুল হাসান জানান, ৭টি দেশে বাংলাদেশের মালিকানাধীন রাষ্ট্রদূতের বাসভবন রয়েছে। চীনের (বেইজিং), ভারতের (নয়াদিল্লি), যুক্তরাজ্যের (লন্ডন), জাপানের (টোকিও), দক্ষিণ আফ্রিকার (প্রিটোরিয়া), যুক্তরাষ্ট্রের (নিউইয়র্ক) ও কানাডার (অটোয়া)।

বর্তমানে নিজেস্ব ভবন নির্মাণের ৩টি প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন রয়েছে : সৌদি আরবের (রিয়াদ), তুরস্কের (আংকারা) এবং পাকিস্তানের (ইসলামাবাদ)।

এছাড়া ভবন নির্মাণ করার জন্য জমির ব্যবস্থা করা হয়েছে : নেপালের কাঠমান্ডু, মালয়েশিয়ায় পুত্রাজায়া, অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরা, মিয়ানমারের নেপিত এবং ব্রুনাইয়ের বন্রসেরি বেগওয়ান।

মন্ত্রী জানান, বর্তমানে পৃথিবীর ৫৬টি দেশে বাংলাদেশের ৭২টি দূতাবাস, কনস্যুলেট, উপ-হাইকমিশন, সরকারি হাইকমিশন রয়েছে।

নাইজেরিয়ার আবুজা, আলজেরিয়ার আলজিয়ার্স ও রুমানিয়ার বুখারেস্টে শিগগিরই বাংলাদেশের দূতাবাসের কার্যক্রম শুরু হবে।

এছাড়া আরো ৭টি নতুন দূতাবাস চালুর বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

এগুলো হলো- আফগানিস্থান (কাবুল), সুদান (খার্তুম), সিয়েরালিওন (ফ্রিটাউন), ভারত (গুয়াহাটি ও চেন্নাই), অস্ট্রেলিয়া (সিডনি) ও কানাডা (টরেন্টো)।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন