শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

৮০০ সন্তানের পিতা!

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৪৩ পিএম

৮০০ সন্তানের পিতা!

সোনালীনিউজ ডেস্ক
যুক্তরাজ্যের এক ব্যক্তি ১৬ বছরে ৮০০ সন্তানের পিতা হয়েছেন বলে দাবি করেছেন। বিবিসি বলছে, সাইমন ওয়াটসন নামের ৪১ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি একজন পেশাদার শুক্রাণু বিক্রেতা। দীর্ঘ দেড়দশক ধরে তিনি সপ্তাহে একবার শুক্রাণু বিক্রি করে আসছেন। লাইসেন্স ছাড়াই তিনি এ কাজ করে আসছেন। ৫০ পাউন্ডের বিনিময়ে তিনি প্রতিবার শুক্রাণু বিক্রি করেন।

জানা গেছে, সন্তানের মা হতে ইচ্ছুক নারীরা তার কাছ থেকে শুধুমাত্র শুক্রাণু কিনে থাকেন। আর গর্ভধারণ থেকে শুরু করে জন্ম দেওয়ার বাদবাকি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয় বিভিন্ন বেসরকারি ক্লিনিকে।

ওয়াটসন প্রতি তিনমাস পর পর নিজের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করান। এরপর স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রতিবেদন তিনি ইন্টারনেটসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করেন।

সম্ভাব্য গ্রাহকেরা যেন তার সম্পর্কে তথ্যনিয়ে নিশ্চিত হতে পারেন সেজন্যেই তিনি এই প্রক্রিয়া অনুসরণ করে থাকেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আর ইন্টারনেটের মাধ্যমেই তিনি বেশিরভাগ গ্রাহক পান বলে জানিয়েছেন। বিশেষ করে ফেইসবুকের মাধ্যমে। কৃত্রিমভাবে গর্ভধারণ যুক্তরাজ্যে বেশ কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রিত হয়। ফলে ঝামেলা এড়াতে অনেকেই বিকল্প হিসেবে এই প্রক্রিয়া গ্রহণ করেন।

যদিও যথাযথ নিয়ম অনুসরণ না করে সন্তান ধারনের জটিলতা হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি। এরপরও সাইমন ওয়াটসনের মতো দাতাদের দ্বারস্থ হন অনেকেই।

ওয়াটসন বলেন, “এভাবে স্পেন থেকে শুরু করে তাইওয়ান পর্যন্ত আমার সন্তানেরা রয়েছে। আমি বিশ্ব রেকর্ড গড়তে চাই যেন তা কেউ ভাঙতে না পারে।” এ কারণে তিনি আরও অনেক বেশি সন্তানের পিতা হতে চান বলেও জানিয়েছেন।

তবে সমালোচকেরা বলছেন, যদিও এটি বেআইনি নয় কিন্তু এ ধরনের অনিয়ন্ত্রিত দাতারা নারীদের যৌনরোগের ঝুঁকিতে ফেলে দিতে পারেন। ওয়াটসন দুইবার বিয়ে করেছেন। তার তিন সন্তান রয়েছে। প্রথম বিয়ে বিচ্ছেদের পর তিনি শুক্রাণু দান কিংবা বিক্রি করা শুরু করেন।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

add-sm
Sonali Tissue
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩