শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ৭ আশ্বিন ১৪২৪

‍‍‘ফেসবুক বন্ধু‍‍‍‍’র ধর্ষণের শিকার কিশোরী

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৪ জানুয়ারি ২০১৭, বুধবার ১২:০৩ পিএম

‍‍‘ফেসবুক বন্ধু‍‍‍‍’র ধর্ষণের শিকার কিশোরী

ফেসবুকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বলে পরিচয় দিয়ে এসএসসি পাশ এক কিশোরীকে পটিয়ে ফেলে  তামিম নামে এক যুবক। আর তার প্রেমের ফাঁদেও পা দেয় মেয়েটি। তখন তার কাছে ছেলেটি ছিল প্রিয় মানুষ। সেই সুবাদে তার সঙ্গে দেখা করতে কেরানীগঞ্জ থেকে ঢাকায় চলে আসে ওই কিশোরী। প্রেমিক তার মুখোশও খুলে ফেলে। দৈনিক বাংলা মোড়ের একটি হোটেলে নিয়ে ধর্ষণ করে রাতভর।

এরপর রিকশাযোগে কিশোরীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে এনে দাঁড় করিয়ে রেখে গাঢাকা দেয় তার কথিত সেই ফেসবুক বন্ধু।

সবশেষ গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় ধর্ষিতা কিশোরীকে সোমবার সন্ধ্যায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাপাতালে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালে কিশোরী সাংবাদিকদের জানায়, তিন মাস আগে ফেসবুকের মাধ্যমে তামিমের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। তামিম নিজেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র হিসেবে পরিচয় দেয়।

ফেসবুকে বন্ধুত্ব থেকে পরিচয়, এবং সবশেষে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠলেও তাদের সরাসরি দেখা সাক্ষাৎ হয়নি।

কিশোরী জানায়, রোববার সকালে তামিম তাকে ফোনে বলে, আজই (রোববার) দেখা করতে। এরপর কেরানীঞ্জের কদমতলীর বাসা থেকে রোববার সন্ধ্যা ৭টায় বের হয়। রাত ৮টার দিকে টিএসসিতে এসে পৌঁছায় সে।

সেখানে আগে থেকেই অপেক্ষা করছিল তামিম। সে রিকশায় করে কিশোরীকে দৈনিক বাংলা মোড়ের একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে রাতভর ধর্ষণ করা হয়।

সোমবার বেলা ১১টার দিকে হোটেল থেকে বের হয়ে তামিম তাকে নিয়ে যায় টিএসসিতে। সেখানে দাঁড়িয়ে থাকতে বলে তামিম চলে যায়।

এরপর কিশোরী কদমতলী বাসায় চলে যায়। বাসায় ফিরে বিষয়টি তার বাবাকে জানায়। এরপর বাবা মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

কিশোরীর বাবা জানান, তার মেয়ে এবার এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৪ দশমিক ১১ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে। তিনি ধর্ষকের বিচার দাবি করেন। তিনি থানায় মামলা করবেন বলেও জানান।

সোনালীনিউজ/এইচএআর

Sonali Bazar

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue