মঙ্গলবার, ২৭ জুন, ২০১৭, ১৩ আষাঢ় ১৪২৪

সফলতা লাভের জিকির ‘আল-মুতাকাব্বিরু’

প্রকাশিত: ০৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৪:৪৪পিএম | আপডেট: ০৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৪:৪৪পিএম

আল্লাহ তাআলার গুণবাচক নাম (اَلْمُتَكَبِّرُ) ‘আল-মুতাকাব্বিরু’। যার অর্থ হলো ‘অত্যন্ত সম্মানিত; গৌরবান্বিত’ এ নামটি কুরআনে বর্ণিত আল্লাহ তাআলার একটি গুণবাচক নামের মধ্যে একটি। এ নামের রয়েছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ফজিলত। মানুষের সম্মান বৃদ্ধি, মর্যাদা লাভ এবং সফলতা লাভের উদ্দেশ্যে এ নামের জিকির বা আমল করলে আল্লাহ তাআলা পূর্ণ করে দেন।
 

আল্লাহর প্রশংসায় অসংখ্য সাওয়াব দান

প্রকাশিত: ০৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৪:৩১পিএম | আপডেট: ০৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৪:৩১পিএম

আল্লাহর প্রশংসার ফজিলত অত্যধিক। যে কারণে আল্লাহ তাআলা কুরআন কারিমের প্রথম সুরায় বান্দাকে প্রশংসা করার পদ্ধতি শিক্ষাদান করেছেন।  আল্লাহ তাআলা বান্দাকে তাঁর প্রশংসা করার জন্যই অসংখ্য সাওয়াব দান করবেন। হাদিসে কুদসিতে ‘আল্লাহর প্রশংসা’র এরূপ একটি ফজিলত এসেছে। যা এখানে তুলে ধরা হলো-
 

অবুঝ শিশুদের হজ আদায়ের নিয়ম

প্রকাশিত: ০২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৪:২৮পিএম | আপডেট: ০২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৪:২৮পিএম

সারা বিশ্ব থেকে মুসলিম উম্মাহ হজ আদায়ে বাইতুল্লায় জড়ো হচ্ছে। অনেকেই সপরিবারে হজ আদায়ের ইচ্ছা পোষণ করেছেন। যাদের অনেকের সঙ্গেই রয়েছে ছোট ছোট সন্তান-সন্ততি। অপ্রাপ্ত বয়স্ক বাচ্চাদের অনেকেই অবুঝ আবার অনেকেই বোধ-শক্তি সম্পন্ন। এ সকল শিশুদের হজ আদায়ের কার্যাবলী সম্পর্কে কিছু দিক-নির্দেশনা তুলে ধরা হলো-
 

জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা শুক্রবার

প্রকাশিত: ০১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৭:১০পিএম | আপডেট: ০১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৭:১০পিএম

১৪৩৭ হিজরি সনের পবিত্র ঈদুল আজহার তারিখ নির্ধারণ ও জিলহজ মাসের চাঁদ দেখার সংবাদ পর্যালোচনা এবং এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের লক্ষ্যে আগামীকাল শুক্রবার সন্ধ্যা পৌনে ৭টায় (বাদ মাগরিব) ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মোকাররম সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির এক সভা অনুষ্ঠিত হবে।

জমজমের পানিতে রয়েছে পুষ্টি এবং রোগের শিফা

প্রকাশিত: ০১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৪:৩১পিএম | আপডেট: ০১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৪:৩১পিএম

দুনিয়াতে আল্লাহ তাআলার যত অনুপম নির্দশন রয়েছে, এর মধ্যে জমজমের পানি অন্যতম। এ কূপের পানি অত্যাধিক স্বচ্ছ, উৎকৃষ্ট, পবিত্র ও বরকতময়। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘এ পানি শুধু পাণীয় নয়, বরং খাদ্যের অংশ, যাতে রয়েছে অসামান্য পুষ্টি এবং রোগের শিফা।
 

পরকালে বিশেষ সম্মানের অধিকারী যারা

প্রকাশিত: ৩১ আগস্ট, ২০১৬ ০৪:০২পিএম | আপডেট: ৩১ আগস্ট, ২০১৬ ০৪:০৩পিএম

মুসনাদে আহমদে এসেছে, ‘সকল মুমিমন ব্যক্তির রূহ একটি পাখি; যা জান্নাতের বৃক্ষ সমূহে থাকে আর কিয়ামাতের দিন তারা নিজ নিজ দেহের দিকে ফিরে আসবে। ইবনে কাসির রহমাতুল্লাহি আলাইহি এ হাদিসের ব্যাখ্যায় বলেছেন, ‘মুমিন মাত্রের রূহই সেখানে জীবিত। কিন্তু শহিদদের রূহ বিশেষ সম্মান, মর্যাদা, বুজুর্গী এবং শ্রেষ্ঠত্বের অধিকারী। আল্লাহ তাআলা বলেন-
 

ন্যায়বিচার পেতে যে আমল করবেন

প্রকাশিত: ৩০ আগস্ট, ২০১৬ ০৮:০২পিএম | আপডেট: ৩০ আগস্ট, ২০১৬ ০৮:০২পিএম

মানুষ সব সময় কিছু নিয়মিত আমল করে থাকেন। আবার বিশেষ মুহূর্তে বিশেষ আমল করে থাকেন। এমনই একটি বিশেষ আমল হলো আল্লাহ তাআলার গুণবাচক নাম (اَلْعَزِيْزُ) আল-আ’যিযু’র পাঠ করা। (اَلْعَزِيْزُ) ‘আল-আ’যিযু শব্দটি আল্লাহ তাআলার গুণবাচক নাম। এ নামের অর্থ হলো- ‘মহাপরাক্রমশালী, প্রবল ক্ষমতাবান’ তাঁর ওপর প্রাধান্য পাওয়ার কারো কোনো সুযোগ নেই। আল্লাহ তাআলার এ গুণবাচক নামের জিকির বা আমল অনেক কার্যকরী। ফজিলতসহ তা তুলে ধরা হলো-
 

স্ত্রীকে মায়ের বেশি প্রাধান্য দিলে তার ওপর অভিশাপ নেমে আসে

প্রকাশিত: ২৯ আগস্ট, ২০১৬ ০৪:২৬পিএম | আপডেট: ২৯ আগস্ট, ২০১৬ ০৪:২৬পিএম

পিতামাতার সন্তুষ্টি ব্যতিত কোনো মানুষের কালিমা নসিব হবে না। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সাহাবি আলকামাহ’র ঘটনাই তা প্রমাণ করে। ইমাম ফকিহ আবু লাইস সমকান্দি রাহমাতুল্লাহি আলাইহি তাঁর রচিত ‘তাম্বিহুল গাফিলিন’ গ্রন্থে পিতামাতার অসন্তুষ্টিতে ঈমানহীন মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে একটি হাদিস উল্লেখ করেছেন। যা এখানে তুলে ধরা হলো-
 

ঝগড়া বিবাদ প্রসঙ্গে বিশ্বনবি যা বলেছেন

প্রকাশিত: ২৭ আগস্ট, ২০১৬ ০৭:২১পিএম | আপডেট: ২৯ আগস্ট, ২০১৬ ০১:২২পিএম

ঝগড়া বিবাদ, দ্বন্দ্ব-কলহ মানুষের জন্য অনেক ক্ষতিকর বিষয়। আল্লাহ তাআলা যখন পৃথিবীতে মানুষ সৃষ্টির কথা ফেরেশতাদেরকে জানালেন, তারা আল্লাহর নিকট যে বিষয়টি জানালেন, তাহলো যে, মানুষ দুনিয়াতে ফাসাদ তথা কলহ সৃষ্টি করবে। দুনিয়াতে ঝগড়া বিবাদ বা দ্বন্দ্ব-কলহ অত্যন্ত ঘৃণিত কাজ এবং ফাসাদ সৃষ্টিকারী ব্যক্তি অবশ্যই অপরাধী। তাই রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামও ঝগড়া বিবাদ সৃষ্টিকারী ব্যক্তি সম্পর্কে সতর্ক করে বলেন-
 

শত্রুদের থেকে হিফাজাত থাকার আমল

প্রকাশিত: ২৬ আগস্ট, ২০১৬ ০৫:০৭পিএম | আপডেট: ২৬ আগস্ট, ২০১৬ ০৫:০৭পিএম

কুরআন-সুন্নাহর উপদেশ হচ্ছে মানুষ মানুষের উপকার করবে। অমঙ্গল বা ক্ষতি করা থেকে বিরত থাকবে। তারপরও মানুষ মানুষের সঙ্গে শত্রুতা ও বিদ্বেষ পোষণ করে থাকে। কারণ মানুষের প্রকাশ্য দুশমন হলো শয়তান। সে মানুষকে অন্যায় ও ক্ষতির পথে পরিচালিত করতে কঠিন প্ররোচনা দিয়ে থাকে। আল্লাহ তাআলা সুরা নাস-এর মাধ্যমে এ বিষয়ে মানব জাতিকে সতর্ক করেছেন। মানুষ শয়তান এবং জিন শয়তান থেকে তাঁর নিকট আশ্রয়ের প্রার্থনার পদ্ধতি শিখিয়েছেন।
 

মঙ্গলবার, ২৭ জুন, ২০১৭, ১৩ আষাঢ় ১৪২৪