শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ৬ আশ্বিন ১৪২৪

‘সেলফি মৃত্যু’ বিশ্বে প্রথম ভারত!

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৪৩ পিএম

‘সেলফি মৃত্যু’ বিশ্বে প্রথম ভারত!

সোনালীনিউজ ডেস্ক
প্রযুক্তির এই যুগে নতুন ফ্যাশন হচ্ছে সেলফি তোলা।কার সেলফি কত রোমাঞ্চকর তা নিয়ে চলছে প্রতিযোগিতা।কিন্তু এই প্রতিযোগিতা যে অনেক সময় মৃত্যুর মত মহাসর্বনাশ ডেকে আনে হয়ত আমরা অনেকেই জানি না।দিন দিন এই তালিকা বৃদ্ধি পাচ্ছে।আর এ দলে তরুণদের সংখ্যাই বেশি।
ওয়াশিংটন পোস্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে ২০১৫ সালে সেলফি তুলতে গিয়ে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি প্রাণ হারিয়েছে ভারতে।

২০১৫ সালে সেলফি তুলতে গিয়ে পৃথিবীতে যত মানুষ সেলফি তুলতে গিয়ে মৃত্যুবরণ করেছে তার অর্ধেকের বেশি মারা গিয়েছে ভারতে। সারা পৃথিবীতে গত বছর ২৭ জন লোক সেলফি তুলতে গিয়ে মারা গিয়েছে।

সম্প্রতি ভারতের মাথুরার কাছাকাছি অঞ্চল কশিকালাতে গত বছর জানুয়ারিতে চলন্ত ট্রেনকে পেছনে রেখে সেলফি তোলার সময় মারা যায় তিন কলেজ পড়ুয়া যুবক। এছাড়া তার কিছুদিন আগে সমুদ্রে সেলফি তুলতে গিয়ে নিখোঁজ হয় এক তরুণী।

গত বছরের মার্চ মাসে বন্ধুর জন্মদিন উদযাপন করতে গিয়ে বোট উল্টে মারা যায় সাত যুবক। আগ্রার তাজমহলে একজন জাপানি ভ্রমণকারি সেপ্টেম্বর মাসে সেলফি তুলতে গিয়ে সিঁড়ি থেকে পিছলে পড়েন। মাথায় গুরুতর আঘাত পান তিনি। পরে সেই আঘাতেই তার মৃত্যু হয়।

তামিল নাড়ুর নামাক্কাল এলাকায় একজন প্রকৌশল বিভাগের ছাত্র একটি পাথরের ওপর ছবি তোলার সময় পাথর খসে ৬০ ফুট নিচে পড়ে যায় এবং সেখানেই তার মৃত্যু হয়। ভারতে আরও দুজন শিক্ষার্থী রাজকটের কাছে সুন্দরনগরের নার্মাদা খালে সেলফি তুলতে গিয়ে মারা যায়।

২০১৬ সালেও ভারতের মুম্বাইয়ের বান্দ্রা ওরলি সি লিঙ্কে সেলফি তুলতে গিয়ে ডুবে মারা গেছে আরও দুজন মানুষ। মুম্বাই পুলিশ মিনাক শহরে ‘নো সেলফি জোনস’ চিহ্নিত করেছে।

সুতরা, সাবধান থাকুন সেলফি তুলতে।

 


সোনালীনিউজ/ঢাকা/মে