মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৭ ফাল্গুন ১৪২৫

অনুদানের টাকা জলে, এমপি হওয়া হলো না আনোয়ারা-সুজাতার!

এন ডি আকাশ | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, শনিবার ০৩:৪৪ পিএম

অনুদানের টাকা জলে, এমপি হওয়া হলো না আনোয়ারা-সুজাতার!

আনোয়ারা-সুজাতা

এন ডি আকাশ: অনুদানের টাকায় ফরম কিনেও এমপি হতে পারেনি দেশ বরেণ্য দুই অভিনেত্রী আনোয়ারা ও সুজাতা!  পুরো টাকাটাই জলে গেল! সংসার চলে না। প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের টাকায় সংরক্ষিত নারী আসনের ফরম কিনেছেন খ্যাতিমান এই দুই অভিনেত্রী এমন খবর গণমাধ্যেমে চাউর হয়ে উঠেছিল সম্প্রকি।  সে সময় নাম প্রকাশে এক সিনিয়র অভিনেত্রী বলেছেন, যাদের নুন আনতে পানতা ফুরায়, প্রধানমন্ত্রী অনুদানের টাকায় সংসার ও চিকিৎসা চলে তারা সেখানে ৩০ হাজার টাকায কিনেছেন সংরক্ষিত নারী আসনের ফরম। টাকা পেলেন কোথায়? নিশ্চয় অনুদানের টাকা। সেই অনুদানের টাকায় ফরম কিনেও এমপি হতে পারলেন না তারা।

এই নিয়ে সোনালীনিজকে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন রূপবান খ্যাত নায়িকা সুজাতা। তিনি শনিবার দুপুরে সোনালীনিউজকে বলেন,‘ আমার এলাকা থেকেই সুবর্ণা মুস্তাফাকে নমিনেশন দেওয়া হয়েছে। সবে মাত্র একুশে পদকে ভূষিত হল একই সপ্তাহে এমপি ঘোষণা। বিষয়টি আমার বোদগম্য নয়। বিশ্বের কোথাও এমন নজির দেখিনি। একসঙ্গে দুটি প্রাপ্তি। এই বিষয় নিয়ে আমি বলতে চাইনা বলে এরিয়ে যান জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী’। অভিনেত্রী আনোয়ারার বেলায় শোনা গেছে এমন ক্ষোভের কথা। তার সঙ্গে কথা বলতে চাইলে তাকে পাওয়া যায়নি।

কিছুদিন আগের কথা। দেশীয় চলচ্চিত্রের অভিনেত্রী আনোয়ারাকে নিয়ে পত্রিকায় প্রকাশিত একটি খবর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চোখে পড়ে। ওই খবরে জানানো হয়— সাহায্য নয়, স্বামীর চিকিৎসার জন্য পাওনা টাকা ফেরত চান গুণী এই শিল্পী। এজন্যই অনেকের দুয়ারে ঘুরছেন তিনি।

খবরটি পড়ার পর আনোয়ারার সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য নিজের ব্যক্তিগত সহকারীকে নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। এরই অংশ হিসেবে ২৭ আগস্ট বিকালে গণভবনে যান ৬৯ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী।

এদিন অনুদান হিসেবে আনোয়ারার হাতে ৩০ লাখ টাকার পারিবারিক সঞ্চয়পত্র ও চেক তুলে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় তাকে জড়িয়ে ধরে কেঁদেছেন আনোয়ারা। ছিলেন তার কন্যা অভিনেত্রী রুমানা ইসলাম মুক্তি।

রাজনীতিতে সক্রিয় না থাকলেও মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী আনোয়ারা। তিনি বলেন, ‘মানুষ সিনেমার মধ্য দিয়ে আমাকে দেখেছে, আমার পাশে থেকেছে। আমি সারাজীবন চেয়েছি মানুষের পাশে থাকার জন্য। আর আমার রাজনৈতিক দর্শন হচ্ছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান। আমি ওনার সংগঠন থেকে মনোনীত হয়ে দেশ ও মানুষের মঙ্গলে নিজেকে নিয়োজিত করতে চাই।’ সে ইচ্ছে পূরণ হলনা আনোয়ারার।

এদিকে ‘রূপবান খ্যাত অভিনেত্রী সুজাতার বিষয়ের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল, যেখানে চরম আর্থিক সংকটে কাটছে তার দিন। নাতির পড়ার খরচ চলে না, সেখানে মানুষের সেবা করতে তিনিও সংরক্ষিত নারী আসনের ৩০ হাজার টাকায় ফরম কিনেছেন। মাত্র  কয়েকদিন আগে দেশের প্রথম কাতারের একটি দৈনিক পত্রিকা তাকে সম্মাননা জানিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এই অভিনেত্রীর হাতে এক লাখ টাকার চেক তুলে দেন। অনেকের প্রশ্ন সেই টাকায় কি সুজাতা ফরম কিনেছেন। অবশ্য চলচ্চিত্র বোদ্ধারা বিষয়টিকে দেখছেন অন্য চোখে। তারা বলেছেন, যে টাকাই হোক মানুষের সেবা করা একটি মহৎগুন। সেকাজ করতে তারা করতে আগ্রহী। সকলে তাদের সম্মান করা উচিত।

ঢাকাই সিনেমার কিংবদন্তি অভিনেত্রী সুজাতা। পঞ্চাশ বছরেরও বেশি সময়ের অভিনয় ক্যারিয়ার তার। অভিনয়ের বাইরে সুজাতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ আর আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। সুজাতা বলেন, ‘আমি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ, বঙ্গবন্ধুর দেশপ্রেমের প্রেরণায় অনুপ্রাণিত। জীবনসায়াহ্নে দাঁড়িয়ে বোধ করছি যেটুকু সময় খোদা আমাকে দেন দেশ ও জাতির কল্যাণে কাজ করে যেতে চাই। 

তাই রাজনীতিতে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। দীর্ঘদিন আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। সে জন্য এই দল থেকেই মনোনয়ন কিনেছি।’ সুজাতা আরো বলেন, ‘আমার বয়স হয়েছে জীবনের শেষ ইচ্ছা এ দেশের মানুষের জন্য কাজ করা। আমি সেই ইচ্ছা থেকেই এবার মনোনয়ন চাইলাম। আমার বিশ্বাস জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে খালি হাতে ফিরিয়ে দেবেন না।’ অবশ্য সে আশা এখন গুড়ে বালি। তারও এমপি হওয়া হলনা। শুধু আনোয়ারা-সুজাতা নয় এমপি হতে পারেনি শোবিজ তারক সারাহ বেগম কবরী, চিত্রনায়িকা মৌসুমী, ফালগুনী হামিদ, অঞ্জনা, দিলারা, অরুণা বিশ্বাস, শমী কায়সার, রোকেয়া প্রাচী, শাহনূর, অপু বিশ্বাস, তারিন জাহান, জ্যোতিকা জ্যোতি, মিস্টি জান্নাত ও চিত্রনায়িকা নূতন।

১৯৬৫ সালে সালাউদ্দীন পরিচালিত ‘রূপবান’ ছবিতে অভিনয় করে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেন সুজাতা। অভিনেতা প্রয়াত আজিম ছিলেন তার স্বামী। সুজাতা অভিনীত উল্লেখযোগ্য ছবির মধ্যে রয়েছে 'অশ্রু দিয়ে লেখা', অবুঝ মন, ধারাপাত, দুই দিগন্ত, প্রতিনিধি, টাকার খেলা, অর্পন, এখানে আকাশ নীল প্রভৃতি। তিনি ‘প্রতিনিধি’সহ বেশ কটি ছবি প্রযোজনা এবং ‘অর্পন’ ছবিটি পরিচালনা করেন।

সোনালীনিউজ/বিএইচ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue