রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১১ আশ্বিন ১৪২৭

অস্ট্রিয়ায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার ‘ডিস্ট্যান্স’ পার্ক

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৫ মে ২০২০, মঙ্গলবার ০২:৩৩ পিএম

অস্ট্রিয়ায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার ‘ডিস্ট্যান্স’ পার্ক

ঢাকা : অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার একটি পার্ক ডিজাইন করা হয়েছে। এর নাম ‘পার্ক ডি লা ডিস্ট্যান্স’। মূলত করোনাভাইরাস মহামারিতে বদলে যাওয়া জীবনযাপনের ধারণা থেকে এটি নেওয়া হয়েছে। পাখির চোখে আঙুলের ছাপ মনে হতে পারে। মূলত মানুষ যেন একে অপরের কাছ থেকে নিরাপদ দূরত্বে থাকতে পারে সেভাবেই এটি ডিজাইন করা হয়েছে।

পার্ক ডি লা ডিস্ট্যান্সএ ধরনের পার্ক বিশ্বে এটাই প্রথম। অসাধারণ নতুন এই সংযোজন ভ্রমণপ্রেমীদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার ক্ষেত্রে সহায়ক হবে। এটি এমন ঢঙে নকশা করা হয়েছে যেন মানুষ নিজেকে বিচ্ছিন্ন বোধ না করে।

লকডাউনে দীর্ঘদিন ঘরবন্দি থাকা মানুষের ওপর বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে। তবে এমন একটি পার্ক তাদের কিছুটা টাটকা হাওয়া উপভোগের সুযোগ করে দেবে। কেউ চাইলে শরীরচর্চায় সময় কাটাতে পারেন এতে।

পার্ক ডি লা ডিস্ট্যান্সসুদৃশ্য পার্কটির নকশা করেছে অস্ট্রিয়ান প্রতিষ্ঠান স্টুডিও প্রেস্ট। ভিয়েনার একটি খোলা জায়গায় এটি সাজানো হয়েছে। শহরটির বাসিন্দারা কেবল এই একটি জায়গায় এখন বেড়াতে পারছেন। কারণ লকডাউনে অন্য সব পার্ক অস্থায়ীভাবে বন্ধ রয়েছে।

পার্কের একটি লেন থেকে অন্যটির দূরত্ব ২৪০ সেন্টিমিটার। আর ৯০ সেন্টিমিটারের প্রস্থ একটি থেকে অন্যটিকে পৃথক করেছে। প্রতিটি লেনে প্রবেশ ও বের হওয়ার একটি করে ফটক আছে। এতে বিনামূল্যে হাঁটাহাঁটি করা যাবে।
পার্ক ডি লা ডিস্ট্যান্সহাঁটাপথ গ্রানাইট কঙ্কর দিয়ে বানানো। কেবল পাশের গলিতে পায়ের আওয়াজ শুনে মনে হবে এখানে আরও কেউ আছে! একা হাঁটলে ২০ মিনিটে পার্কটি ঘোরা হয়ে যাবে। তথ্যসূত্র: লোনলি প্লানেট।

সোনালীনিউজ/এএস