শনিবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৯, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

অস্ট্রেলীয় পেসারদের দাপটে কাঁপছে ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা

ক্রীড়া প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৫ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার ০৯:০৪ পিএম

অস্ট্রেলীয় পেসারদের দাপটে কাঁপছে ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা

ছবি টুইটার থেকে নেওয়া

ঢাকা: ২৮৬ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে অস্ট্রেলীয় পেসারদের দাপটে রীতিমত কাঁপছে ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা। স্কোর বোর্ডে ৫৩ রান তুলতেই মুল্যবান ৪টি উইকেট হারিয়ে ফেলেছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

আগে ব্যাট করতে নেমে অ্যারন ফিঞ্চের সেঞ্চুরি ও ডেভিড ওয়ার্নারের  হাফ সেঞ্চুরিতে ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৮৫ রান সংগ্রহ করে অস্ট্রেলিয়া। জবাবে লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই ইংল্যান্ডের ওপর আঘাত হানেন অসি পেসার জেসন বেহরেনডর্ফ। বোল্ড করে ফিরিয়ে দেন ইংলিশ ওপেনার জেমস ভিন্সকে।

দলীয় ১৫ রানে মিচেল স্টার্কের বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে যান ফর্মের তুঙ্গে থাকা জো রুট (৮)। ইংলিশ অধিনায়ক ইয়োইন মরগনকে (৪) প্যাট কামিন্সের তালুবন্দি করে দ্বিতীয় শিকার ধরেন স্টার্ক। এরপর ইংলিশদের টেনে তোলার চেষ্টা করেন জনি বেয়ারস্টো আর বেন স্টোকস। কিন্তু দলীয় ৫৩ রানে বেহরেনডর্ফের বলে যাট কামিন্সের তালুবন্দি হয়ে সাজঘরে ফেরেন বেয়ারস্টো।  

অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের গুরুত্বপুর্ণ এই ম্যাচের উপর নির্ভর করছে সেমিফাইনালের হিসেব নিকেশ। এমন ম্যাচে মঙ্গলবার (২৫ জুন) লর্ডসে টস জিতে অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ইংলিশ অধিনায়ক ইয়ন মরগান। ব্যাট করতে নেমে দুই ওপেনারের ব্যাটে শক্তিশালী সূচনা করেছে অস্ট্রেলিয়া। অ্যারোন ফিঞ্চ আর ডেভিড ওয়ার্নার ১২৩ রানের জুটি গড়েন।  

ইংল্যান্ডকে পেলে বরাবরই রুদ্রমূর্তি ধারণ করতে ভালোবাসেন অ্যারন ফিঞ্চ। সে ধারাবাহিকতা ধরে রেখে অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক টুর্নামেন্টে নিজের চতুর্থ ফিফটি তুলে নিয়েছেন। ফিফটি পেয়েছেন ডেভিড ওয়ার্নারও। সর্বোচ্চ রান নিয়ে সাকিব আল হাসানের সঙ্গে তার লুকোচুরি খেলা চলছে। গতকাল টপকে গিয়েছিলেন সাকিব, আজ আবার শীর্ষে উঠে গেলেন ওয়ার্নার। প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে এ বিশ্বকাপে ৫০০ রানের গণ্ডিও পেরিয়েছেন এ বাঁ হাতি।

শেষ পর্যন্ত মঈন আলির বলে ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে  জো রুটের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে বিদায় নেন ডেভিড ওয়ার্নার। তার আগে ৬১ বলে ৬টি বাউন্ডারিতে ৫৩ রান করেন এই অসি ওপেনার। ওয়ার্নারের বিদায়ের পর ক্রিজে আসা উসমান খাজাকে সঙ্গে নিয়ে আরও একটি জুটি গড়ার দিকে নজর দেন ফিঞ্চ। কিন্তু ২৯ বলে ২৩ রান করে বেন স্টোকসের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন উসমান।  

এরপর ১১৫ বলে সেঞ্চুরি করেন অসি অধিনায়ক। ১১টি বাউন্ডারির সঙ্গে ২টি ছক্কার মার মারেন তিনি। সেঞ্চুরি করার পরের বলেই জোফরা আর্চারের বলে ক্রিস ওকসের হাতে ক্যাচ দেন ফিঞ্চ। এরপর মাঠে নামেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। মাঠে নেমেই তিনি শুরু করেন চার-ছক্কার মার। তবে খুব বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। মাত্র ৮ বলে ১২ রান করে মার্ক উডের বলে বাটলারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান তিনি।

 ৮ রানে রান আউট মার্কু স্টইনিস। তার বিদায়ের মধ্য দিয়ে ৪১.৫ ওভারে ২২৮ রানে পাঁচ উইকেটে হারায় অস্ট্রেলিয়া। দলের ব্যাটিং বিপর্যয়ের দিনে হাল ধরতে পারেননি সাবেক অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ। ৩৪ বলে ৫টি চারের সাহায্যে ৩৮ রান করতেই ক্রিস ওকসের বলে ক্যাচ তুলে দেন স্মিথ। তার বিদায়ের পর ইনিংসের শেষ দিকে একাই লড়াই করে যান অ্যালেক্স কেরি। তার ২৭ বলের অপরাজিত ৩৮ রানে ভর করে শেষ পর্যন্ত স্কোর বোর্ডে ৭ উইকেটে ২৮৫ রান তুলতে সক্ষম হয় অস্ট্রেলিয়া।

দুই দলের মধ্যে অপেক্ষাকৃত সুবিধাজনক অবস্থানে আছে অস্ট্রেলিয়া। ৬ ম্যাচে ৫ জয় (আফগানিস্তান, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের বিপক্ষে) ও এক হারে (ভারতের বিপক্ষে) ১০ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে এখন অস্ট্রেলিয়া। আজ জয়ের কোনো বিকল্প ভাবছে না সেমির স্বপ্নে বিভোর অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চের দল।

৬ ম্যাচে ৪ জয় (দক্ষিণ আফ্রিকা, বাংলাদেশ, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আফগানিস্তানের বিপক্ষে) ও ২ হারে (পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে) ৮ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে ইংল্যান্ড। শেষ চারে পৌঁছানোর রাস্তা পরিষ্কার করতে জিততে চায় আজ ক্যাপ্টেন ইয়ন মরগানের দলও।

ইংল্যান্ড একাদশ: ইয়ন মরগান (অধিনায়ক), জনি বেয়ারস্টো, জেমস ভিন্স, জো রুট, বেন স্টোকস, জস বাটলার, মঈন আলি, ক্রিস ওকস, আদিল রশিদ, জোফরা আর্চার, মার্ক উড।

অস্ট্রেলিয়া একাদশ: অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), ডেভিড ওয়ার্নার, উসমান খাজা, স্টিভেন স্মিথ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মার্কাস স্টয়নিস, অ্যালেক্স কারে, জেসন বেহরেনডর্ফ, প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক, নাথান লিয়ন

সোনালীনিউজ/ঢাকা/জেডআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue