রবিবার, ০৫ জুলাই, ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭

আওয়ামী লীগ-বিএনপির তুমুল সংঘর্ষ, গুলি বহু আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৬ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার ০৩:২৫ পিএম

আওয়ামী লীগ-বিএনপির তুমুল সংঘর্ষ,  গুলি  বহু আহত

ঢাকা : ঢাকা সিটি নির্বাচনে দক্ষিণ বিএনপি'র মনোনীত মেয়র প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেনের প্রচারণায় হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা।  

রোববার (২৬ জানুয়ারি) বেলা একটার দিকে গণসংযোগে এ হামলা চালানো হয়। এতে বিএনপির প্রার্থীসহ বেশ কয়েকজন সাংবাদিক এবং বিএনপি নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। 

এদিন সকাল সাড়ে এগারোটায় প্রচারণা শুরু করে গোপীবাগের সেন্ট্রাল উইমেন্স কলেজের সামনে দিয়ে গণসংযোগের যাওয়ার সময় রাস্তার দুপাশ থেকে বেশ কয়েকজন দুর্বৃত্ত অতর্কিত হামলা চালায়।

এতে প্রায় ১৫ থেকে ২০ মিনিট যাবৎ দু'গ্রুপের ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও রড-লাঠিসোঁটা নিয়ে সংঘর্ষ চললেও, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কোন সদস্যদের চোখে পড়েনি। প্রায় আধা ঘন্টা পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা আসলে পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত হয়।  
ইশরাকের প্রচারে থাকা ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতা বাংলাদেশ জাতীয় দলের চেয়ারম্যান সৈয়দ এহসানুল হুদা জানান, প্রচার চলার সময় হঠাৎ করেই হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। হামলায় তারা প্রায় বিশ রাউন্ড গুলিও করে। হামলায় মেয়র প্রার্থী ইশরাকসহ প্রায় বিশজনের মতো আহত হন।  

হুদা জানান, ইশরাকের প্রচারে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাহ উদ্দিন টুকুসহ অন্য নেতারা ছিলেন।

হামলার পর সাংবাদিকদের কাছে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন বলেন, আমি গোপীবাগে আমার পৈত্রিক বাড়ী যাচ্ছিলাম। এসময় অতর্কিত ভাবে আমার ওপর হামলার করা হয়। এটা একটা কাপুরুষের কাজ। আমরাতো শান্তিপূর্ণ ভাবে প্রচারণা বাসায় যাচ্ছি। এই সময় কয়েকটি বাড়ির ছাদ থেকে বড় বড় ইট আমাদের ওপর নিক্ষেপ করা হয়। 

হামলার সময় কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়া হয়। এবিষয়ে ইশরাক বলেন, আমাদের কাছে গুলি আসবে কোত্থেকে। আওয়ামী লীগের এই আমলে বিএনপি কর্মীরা যেখানে বাসায় থাকতে পারছে না সেখানে গুলি নিয়ে রাস্তা বের হবে এটা আপনারা ভাছেন কিভাবে।

সোনালীনিউজ/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue