বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬

আফগানিস্তানকে উড়িয়ে দিল বাংলাদেশ, তবুও নাচছেন না কোচ

ক্রীড়া ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শনিবার ১২:০৪ এএম

আফগানিস্তানকে উড়িয়ে দিল বাংলাদেশ, তবুও নাচছেন না কোচ

ঢাকা: আগামী ১০ সেপ্টেম্বর তাজিকিস্তানের দুশানবের রিপাবলিকান সেন্ট্রাল স্টেডিয়ামে আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। এটি বাংলাদেশের অ্যাওয়ে ম্যাচ। নিজ দেশের নিরাপত্তা হুমকিতে থাকায় আফগানিস্তান তাদের হোম ভেন্যু করেছে তাজিকিস্তানে। সেখানে খেলাটি হবে টার্ফে।

এদিকে, আফগানিস্তান বৃহস্পতিবার রাতে দোহায় তুলোধুনো হয়েছে কাতারের কাছে। হেরেছে অর্ধডজন গোলে। যারা ভাবছেন এই আফগানিস্তানকে হারানো সহজ হবে বাংলাদেশের জন্য, তাদের দলে নেই জাতীয় দলের ইংলিশ কোচ জেমি ডে।

কাতার-আফগানিস্তানের ম্যাচটি তিনি দেখেছেন। আর আফগানিস্তান ৬ গোল খেলেও তাদের খেলার পারফরম্যান্স মূল্যায়ন করে জেমি ডে।

তিনি বলেছেন, ‘আফগানিস্তান বড় ব্যবধানে হারলেও খুশি হওয়ার কিছু নেই। এ দলটিকে হারাতে হলে আমাদের দুর্দান্ত ফুটবল খেলতে হবে।’

দেশটির কন্ডিশনের সঙ্গে খাপ খাওয়াতেই ১০ দিন আগে দুশানবে গেছে ফুটবল দল। অনুশীলনের পাশপাশি তাজিকিস্তানের প্রিমিয়ার লিগের দুটি দলের সঙ্গে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে একটি হেরেছে, একটি ড্র করেছে জামাল ভূঁইয়ারা।

কেমন হলো প্রস্তুতি ম্যাচ দুটো? প্রশ্ন করতেই জেমি ডে’র জবাব, ‘আমি খুব খুশি। দুটি প্রস্তুতি ম্যাচই দারুণ হয়েছে। খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্স ভালো ছিল।’

দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলিয়ে নিজের শিষ্যদের পরখ করলেন। কাতারের বিরুদ্ধে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচটিও দেখলেন। আফগানিস্তানকে হারানো কি সম্ভব? ‘কঠিন হবে এটা। আফগানিস্তানকে হারাতে হলে আমাদের দুর্দান্ত ফুটবল খেলতে হবে’-জবাব জেমি ডে’র।

আফগানিস্তানের চেয়ে কোনো বিভাগে কি আমরা এগিয়ে আছি? কি মনে করেন আপনি? ‘এ বিষয়ে কিছু বলা মুশকিল। কারণ, আফগানিস্তান শক্তিশালী দল। তাদের বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় ইউরোপে খেলে। এটাই বলে দিচ্ছে তাদের লেভেলটা কি রকম’-বলেছেন বাংলাদেশের কোচ।

বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বের প্রথম দিনে দক্ষিণ এশিয়ার চারটি দেশ খেলেছে। এর মধ্যে মালদ্বীপ শুধু জিতেছে। হেরেছে ভারত, নেপাল ও শ্রীলংকা। এ প্রসঙ্গ টেনে জেমি ডে বলেন, ‘এই ফলগুলোই আপনাকে বুঝিয়ে দিচ্ছে দক্ষিণ এশিয়ার ফুটবল কতটা পিছিয়ে।’

তাজিকিস্তান গিয়ে ৫ দিনে দুটি অনুশীলন ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। তারপরও জেমি ডে প্রথম একাদশ দাঁড় করাতে পারেননি। কেন? ‘কিছু পজিশন নিয়ে আমি এখনো সিদ্ধান্তহীনতায়। কারণ, ওই পজিশনের জন্য ২/৩ জনের মধ্যে লড়াই চলছে। তাই একাদশ চূড়ান্ত করতে আরো সময় নিচ্ছি।’

দুটি প্রস্তুতি ম্যাচে স্ট্রাইকাররা গোল পেলেন না। আবার সেই রবিউল গোল করে দলের মান রাখলেন। আপনার স্ট্রাইকারদের নিয়ে কিছু বলবেন? জেমি ডে বলেন, ‘নির্দিষ্ট কোনো পজিশন নিয়ে নয়, আমার ভাবনা সব পজিশন নিয়ে। তবে এটা ঠিক-ম্যাচ জিততে হলে আমাদের স্কোর করতে হবে।’

আপনাকে নিয়ে দেশের মানুষের প্রত্যাশা অনেক। সব হয়তো মাঠে ঠিক হয়ে যাবে, কি বলেন? জেমির উত্তর, ‘আমার হাতে অলৌকিক কিছু নেই।’

সোনালীনিউজ/এমএএইচ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue