শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৯, ৩ কার্তিক ১৪২৬

আমার দেখা ভিয়েতনামের প্রাথমিক শিক্ষা

ফরিদ আহাম্মদ | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার ০৪:০৩ পিএম

আমার দেখা ভিয়েতনামের প্রাথমিক শিক্ষা

শেরপুর জেলার ২০১৮ সালের শ্রেষ্ঠ শিক্ষক হিসেবে গত ৬ -১২ সেপ্টেম্বর,২০১৯ ভিয়েতনামে অনুষ্ঠিত Modern School Management Practices বিষয়ক কর্মশালায় অংশগ্রহণ করি। সেখানে ভিয়েতনামের প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা সর্ম্পকে ব্যাপক ধারণা দেয়া হয়। 

তাই ভিয়েতনামের প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা সর্ম্পকে কয়েকটি কথা বলার প্রয়োজন বোধ করছি। ভিয়েতনামে মাত্র ১৫ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ৪ লাখ শিক্ষক রয়েছেন। মহিলাদেরকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়। 

কোন পুরুষ শিক্ষক হিসেবে কর্মরত নেই। শিক্ষক শিক্ষার্থী অনুপাত ১ঃ২৫। প্রাক প্রাথমিক শিক্ষা ২ বছর মেয়াদী এটি কিন্ডারগার্টেন শিক্ষা নামে পরিচিত। সরকার তা নিয়ন্ত্রণ করে।

সরকারের অনুমতি ছাড়া সেখানে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান করার সুযোগ নেই। ১ম-৫ম শ্রেণি প্রাথমিক শিক্ষার আওতাভুক্ত। ভিয়েতনামে প্রাথমিক শিক্ষায় কোনো পরীক্ষা বা গ্রেডিং পদ্ধতি নেই। শিক্ষকদের মূল্যায়নে ক্লাস প্রমোশন দেয়া হয়। বই বিনামুল্যে দেয়া হয় না।

অভিভাবকরা নির্ধারিত মূল্যে সন্তানদের বই কিনে দেন। সপ্তাহে ২৩ টি লেসন দিতে হয়। প্রতি ক্লাস ৪০ মিনিট করে। বিদ্যালয়গুলো বাধ্যতামূলকভাবে একই সময় শুরু এবং শেষ হয়।

বিদ্যালয়ের প্রধানের পদবী হল প্রিন্সিপাল। শ্রেণি কাজ প্রিন্সিপাল পরিস্থিতি অনুযায়ী আগে পিছে করার ক্ষমতা রাখেন। ভিয়েতনামে ফুল ডে ও হাফ ডে স্কুলিং চালু আছে।

শিক্ষাবর্ষ সেপ্টেম্বর-জুন। প্রত্যেক ৫ সেপ্টেম্বর নিউ স্কুল ইয়ার পালন করে থাকে তারা। ওইদিন প্রত্যেক স্কুলের প্রধান শিক্ষককে প্রধানমন্ত্রী দায়িত্ব পালনে সচেতনতামূলক চিঠি দেন। প্রিন্সিপাল ঢোল বাজিয়ে বিদ্যালয় খোলা হওয়ার কথা জানান দেন। 

ভিয়েতনামে গ্রেজুয়েশন ডিগ্রী অর্জন না করে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হওয়ার সুযোগ নেই। শিক্ষকদের প্রারম্ভিক বেতন ৪০লাখ ডং বা ১৮০ ইউএস ডলার। ভিয়েতনামের গ্রাম ও শহর অঞ্চলের শিক্ষার মানে পার্থক্য নেই। সর্বত্র সমানভাবে আধুনিক সুবিধাসহ দক্ষ শিক্ষক রয়েছে।

গ্রামের শিক্ষকদের প্রান্তিক এলাকায় কাজ করার জন্য বিশেষ প্রনোদনার ব্যবস্থা আছে। সেখানে শিক্ষককতা করা ছাড়া সরকারের বাড়তি কোন কাজ করতে হয় না। ভিয়েতনামের যে বিষয়টি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মনে হয়েছে, তা হল- শিক্ষক যোগ্যতা বা শিক্ষক মান। 

তারা বিশ্বাস করে The quality of an educational system cannot exceed the quality of it’s teachers. A teacher is good trained and good quality. শিক্ষক প্রশিক্ষণ বিষয়ক বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয় হতে প্রাথমিক শিক্ষায় অনার্স, মাস্টার্স ও এমফিল করার সুবিধা আছে। 

এছাড়াও সাধারণ পড়াশোনা শেষে ২ বছর মেয়াদি প্রশিক্ষণের পর প্রাথমিক শিক্ষক হওয়া যায়। ভিয়েতনামের শিক্ষকদের পেশাদারিত্ব ও আন্তরিকতা আমাকে মুগ্ধ করেছে।পেশার প্রতি নিবেদিত প্রাণ দক্ষ শিক্ষক হলে শিক্ষায় বিপ্লব আনা সম্ভব সেটা ভিয়েতনামকে দেখে অনুধাবন করা যায়। ভিয়েতনামে প্রাথমিক শিক্ষা শিক্ষার্থী কেন্দ্রিক ও বাস্তবভিত্তিক।নতুন নতুন ইনোভেটিভ ধারণা প্রাথমিক শিক্ষাকে ঈর্ষনীয় সাফল্য এনে দিয়েছে।

লেখকঃ জেলা শ্রেষ্ঠ শিক্ষক, শেরপুর সহকারি শিক্ষক- গোজাকুড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, নালিতাবাড়ী, শেরপুর। e-mail: faridptg110@gmail.com

সোনালীনিউজ/এইচএন


*** প্রকাশিত মতামত লেখকের নিজস্ব ভাবনার প্রতিফলন। সোনালীনিউজ-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে লেখকের এই মতামতের অমিল থাকাটা স্বাভাবিক। তাই এখানে প্রকাশিত লেখার জন্য সোনালীনিউজ কর্তৃপক্ষ লেখকের কলামের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে আইনগত বা অন্য কোনও ধরনের কোনও দায় নেবে না। এর দায় সম্পূর্ণই লেখকের।