বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬

‘আমি তো মরেই গিয়েছিলাম, বেঁচে আছি অলৌকিকভাবে’

সোনালীনিউজ ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৭ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার ১০:১২ পিএম

‘আমি তো মরেই গিয়েছিলাম, বেঁচে আছি অলৌকিকভাবে’

ঢাকা : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমি তো মরেই গিয়েছিলাম। অনেকটা অলৌকিকভাবে ফিরে এসেছি। দেশের মানুষের দোয়ায় আমি আজও বেঁচে আছি। তাই মানুষের জন্য আরও কাজ করতে হবে। দেশের জন্য কাজ করেই বাকিটা জীবন কাটিয়ে দিতে চাই।

বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) দুপুরে মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার পদ্মাসেতুর সার্ভিস এরিয়া-১ এর ভিজিটরস সেন্টারে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি একথা বলেন।

২০২১ সালের জুন মাসের মধ্যে দেশের সর্ববৃহৎ স্থাপনা পদ্মা সেতুর কাজ শেষ হবে বলে জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতুর বাস্তব কাজের অগ্রগতি ৮৪ শতাংশ।

তিনি বলেন, পদ্মা সেতুর কাজের আর্থিক অগ্রগতি ৭৫ দশমিক ৮৪ শতাংশ এবং প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি ৭৪ শতাংশ। আর বাস্তব কাজের অগ্রগিত ৮৪ শতাংশ।

দ্রুত কাজ শেষ করার আশাবাদ ব্যক্ত করে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘২০২১ সালের জুনের মধ্যে আমরা কাজ শেষ করতে চাই। তবে পদ্মা নদী খুবই আনপ্রেডিক্টেবল (অননুমেয়)। একইসঙ্গে নদীতে তীব্র স্রোত থাকে এবং প্রচুর পলি বহন করে। এতে করে পিয়ারে স্প্যান বসানো সম্ভব হয় না। সিডিউল অনুযায়ী কাজ শেষ করা কঠিন হয়ে পড়ে। তিনি বলেন, ‘মূল সেতুর সবকটি পাইল ড্রাইভিংয়ের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। ৪২টি পিয়ারের মধ্যে ৩২টি পিয়ারের কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

গত ৩ মার্চ রোববার সকালে ফজরের নামাজ শেষ হঠাৎ করেই শ্বাসপ্রশ্বাসে সমস্যা হচ্ছিল ওবায়দুল কাদেরের। সঙ্গে সঙ্গে তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তার শরীর চেকআপ করেন। পরামর্শ দেন দ্রুত এনজিওগ্রাম করার। এরপর ৪ মার্চ তার শারীরিক অবস্থা অবনতি হলে ভারতের বিখ্যাত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ দেবি শেঠির পরামর্শে তাকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে সিঙ্গাপুরে নেয়ায়। সেখান থেকে ১৫ মে দেশে ফিরবেন আওয়ামীলীগের গুরুত্বপূর্ণ এই নেতা।

সোনালীনিউজ/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue