মঙ্গলবার, ২৬ মে, ২০২০, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ইসলামী ফাউন্ডেশনের ডিডির বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির মামলা

লালমনিরহাট প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ মে ২০২০, শনিবার ০৬:৩৭ পিএম

ইসলামী ফাউন্ডেশনের ডিডির বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির মামলা

লালমনিরহাট : লালমনিরহাট ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপ পরিচালক  ওমর ইবনে হাসানের বিরুদ্ধে গৃহপরিচারিকাকে যৌন  নিপিড়নের অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে। সদর থানায় ওই গৃহ পরিচারিকার মা বাদী হয়ে মামলাটি করেন। পুলিশ প্রাথমিক  তদন্ত শেষে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলাটি রেকর্ড করে।

দায়ের কৃত মামলার বিবরনি হতে জানা গেছে, ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক ওমর ইবনে হাসান শহরের খুটামারা বটতলা এলাকায় ভাড়া বাড়িতে থাকেন। তার পরিবার ময়মনসিংহ জেলায় থাকেন। উপ-পরিচালকের বাসায় এক কিশোরী গৃহপরিচারিকা (সুমাইয়া আক্তার) কাজ করেন। 

উপ-পরিচালকের পরিবার নিজ বাড়ী ময়মনসিংহ জেলায় থাকার সুবাধে গৃহপরিচারিকার উপর কু-নজর দেন ওমর ইবনে হাসানের। একদিন তাকে কু-প্রস্তাব দেন।  এতে গৃহপরিচারিকা রাজী না হলে তার বাবাকে অটো কিনে দেওয়ার কথা বলে ও আর্থিক প্রলোভন দেখায়।  এতেও রাজী না হলে একপর্যায়ে গত ১ মে কিশোরী গৃহপরিচারিকাকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে।  এ সময় কিশোরী গৃহপরিচারিকা চিৎকার দিলে তার নানীসহ এলাকার লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে। 

ঘটনাটি ধামা চাপা দেওয়ার চেস্টা চালায় উপ পরিচালক ওমর ইবনে হাসান।  গৃহপরিচারিকার মা বিভিন্ন স্থানে বিচার দিয়ে কোন বিচার না পেয়ে অবশেষে লালমনিরহাট সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। 

সদর থানার পুলিশ অভিযোগ তদন্ত করে প্রমান পাওয়ায় গত ১৩ মে মামলাটি এজাহারভুক্ত করে। ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দায়ের কৃত মামলা আসামী করা হয়েছে লালমনিরহাট ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক ওমর ইবনে হাসানকে।

লালমনিরহাট সদর থানার  অফিসার ইনচার্জ মাহফুজ আলম জানান, লালমনিরহাট ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক ওমর ইবনে হাসান এর বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলা হয়েছে।  আইনানুযায়ী ব্যাবস্থা নেওয়া হবে। 

এবিষয়ে লালমনিরহাট ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক ওমর ইবনে হাসান বলেন, তার বিরুদ্ধে এ  অভিযোগ মিথ্যা।  তার কাছে চাঁদা দাবী করা হয়েছে, চাঁদা না দেওয়ায় এ মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।  

সোনালীনিউজ/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue