সোমবার, ৩০ মার্চ, ২০২০, ১৬ চৈত্র ১৪২৬

এইচএসসি পরীক্ষা পেছোনোয় যা ভাবছেন পরীক্ষার্থী-অভিভাবকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৬ মার্চ ২০২০, বৃহস্পতিবার ০১:০১ পিএম

এইচএসসি পরীক্ষা পেছোনোয় যা ভাবছেন পরীক্ষার্থী-অভিভাবকরা

ঢাকা: করোনাভাইরাসের কারণে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। প্রতিনিয়ত দেশের পরিস্থিতি আরও জটিল ও ভয়াবহ হওয়ায় এ পরীক্ষা নিয়ে অনিশ্চয়তায় পড়েছেন পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পুনরায় পরীক্ষার আয়োজন করা হবে এবং পরীক্ষা শুরুর আগে পরীক্ষার্থীদের দুই সপ্তাহ সময় দেয়া হবে বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।

আন্তঃজেলা বোর্ড সূত্র জানায়, চলমান করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে শিক্ষার্থীদের নিরাপদে রাখতে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হলেও পরে তা ৯ মার্চ পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়। এ সময় শিক্ষার্থীদের নিজ বাসায় অবস্থান করতে নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

অন্যদিকে ১ এপ্রিল থেকে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও এ পরীক্ষা পিছিয়ে দেয়া হয়েছে। তবে কবে এ পরীক্ষা শুরু করা হবে সে বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। এ পরিস্থিতিতে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় দিন পার করছেন পরীক্ষার্থী-অভিভাবকরা।

এইচএসসি পরীক্ষার্থী অগ্রণী স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্রী মেহজাবীন রহমান বলেন, পরীক্ষার জন্য দিনরাত পড়ালেখা করে ভালো প্রস্তুতি নিলেও বিশেষ কারণে পরীক্ষা পিছিয়ে দেয়া হয়েছে। কবে এ পরীক্ষা হবে তা ঘোষণা না দেয়ায় দুশ্চিন্তায় সময় পার করছি।

এই শিক্ষার্থীর অভিভাবক অ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান জানান, মেয়ের পরীক্ষা নিয়ে অনেক চিন্তায় রয়েছি। সারাবিশ্বে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। এ কারণে বিশ্বজুড়ে অচলাবস্থা বিরাজ করছে। এই সঙ্কট কাটিয়ে কবে আবারও সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরি হবে, আর কবেই বা পরীক্ষা নেয়া হবে এসব বিষয়ে তিনি দুশ্চিন্তায় রয়েছেন বলে জানান।

মিরপুরে মনিপুর স্কুলের নাদিয়া হাসান এবার এইচএসসি পরীক্ষার্থী। পহেলা এপ্রিল থেকে এইচএসসি পরীক্ষার রুটিনের ওপর নির্ভর করে দিনরাত পড়ালেখা করে প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন। পরীক্ষা স্থগিত হওয়ায় বর্তমানে তার পড়ালেখায় মন বসছে না বলে জানান এই শিক্ষার্থী।

তিনি বলেন, কবে পরীক্ষা হবে তা জানি না, যদি কোনোভাবে জানা যেত সেভাবে আবারও প্রস্তুতি শুরু করতাম। পড়ালেখা করার চেষ্টা করলেও মন বসছে না। তাই এখন অলস সময় পার করছি।

এই পরীক্ষার্থীর মা রুবিনাত হাসান বলেন, আমাদের ভাগ্য খারাপ বলে এমন একটি পরিস্থিতির মধ্যে দিন পার করতে হচ্ছে। একাধিক শিক্ষক দিয়ে ও দিনরাত চেষ্টা করে মেয়েটি ভালো প্রস্তুতি সম্পন্ন করলেও পরীক্ষা স্থগিত হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে কোনো শিক্ষকও বাসায় এসে পড়াতে চান না। তাই বাসায় থেকে সময় নষ্ট করা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই। এইচএসসি পরীক্ষা শুরুর আগে পরীক্ষার্থীদের পর্যাপ্ত সময় দেয়ার দাবি জানান পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধসহ এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে পরীক্ষা আয়োজন করা অসম্ভব বলেই এ পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, পরীক্ষা স্থগিত হয়েছে এ জন্য দুশ্চিন্তার কিছু নেই। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এ পরীক্ষা শুরু করা হবে। তবে পরীক্ষা শুরুর দুই সপ্তাহ আগে নতুন সময়সূচি প্রকাশ করা হবে। এ সময়ের মধ্যে পরীক্ষার্থীরা পর্যাপ্ত প্রস্তুতি নেয়ার সুযোগ পাবে। তাই অলস সময় পার না করে সকলকে ভালো প্রস্তুতি নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন মাহবুব হোসেন।

সোনালীনিউজ/টিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue