বৃহস্পতিবার, ২৩ মে, ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

একাদশে ভর্তির আবেদন শুরু, যেভাবে করা যাবে

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১২ মে ২০১৯, রবিবার ০৮:১০ এএম

একাদশে ভর্তির আবেদন শুরু, যেভাবে করা যাবে

এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি কার্যক্রম শুরু হচ্ছে আজ। দুপুর ১২টায় শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী ঢাকা শিক্ষা বোর্ড মিলনায়তনে এ কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন। ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা অনলাইন ও মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন। জিপিএ’র ভিত্তিতে কলেজে ভর্তি হতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। গতকাল আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মু. জিয়াউল হক এ তথ্য জানিয়েছেন। 

আজ থেকে শুরু হয়ে আগামী ২৩শে মে পর্যন্ত অনলাইন ও এসএমএসে আবেদন করা যাবে। আর জুন মাসের মধ্যে ভর্তির কাজ শেষ হয়ে আগামী ১লা জুলাই থেকে ক্লাস শুরু হবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, দেশের ৮টি সাধারণ বোর্ড, মাদরাসা ও কারিগরি বোর্ড থেকে ২০১৭, ২০১৮ ও ২০১৯ সালে উত্তীর্ণরা একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হতে পারবেন।

আর উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভর্তির ক্ষেত্রে এবার সর্বোচ্চ ২২ বছর বয়স নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে পাসের বছর বিবেচ্য হবে না। আর ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদনকারীদেরও এই সময়ের মধ্যেই ভর্তির আবেদন করতে হবে। অনলাইনে শিক্ষার্থীরা ভর্তি আবেদনের ক্ষেত্রে ( www.xiclassadmission.gov.bd) এবং টেলিটক মোবাইল থেকে এসএমএস করতে পারবেন। 

অনলাইনে আবেদনের আগে শিক্ষার্থীকে শুধুমাত্র টেলিটক/রকেট/শিওরক্যাশ ব্যবহার করে অন-লাইনের আবেদন ফি এসএমএস এর মাধ্যমে দিতে হবে। প্রার্থীকে তার এসএসসি/সমমানের পরীক্ষার রোল নম্বর, বোর্ড, পাসের সাল এবং রেজিস্ট্রেশন নম্বর ব্যবহার করে টেলিটক/রকেট/শিওরক্যাশ এর মাধ্যমে ১৫০ টাকা ফি জমা দিতে হবে। এক্ষেত্রে টেলিটক সিম থেকে মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে  CAD স্পেস WEB  স্পেস পরীক্ষার পাসের board এর নামের প্রথম তিন অক্ষর স্পেস পরীক্ষার রোল স্পেস পরীক্ষা পাসের বর্ষ লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। ফিরতি এসএমএস এ আবেদনকারীর নাম এবং আবেদন ফি বাবদ ১৫০ টাকা কেটে নেয়া হবে এবং তা জানিয়ে একটি পিন কোড দেয়া হবে। ফি দিতে সম্মত থাকলে ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে CAD (space) YES (space) PIN (space) CONTACT NUMBER (বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে পুনঃনিবন্ধিত মোবাইল নম্বর) লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। ফি সঠিকভাবে জমা হলে প্রার্থীর মোবাইলে নিশ্চিতকরণের একটি Transaction ID  সহ SMS যাবে। 

টেলিটক/রকেট/শিওরক্যাশ মাধ্যমে নির্ধারিত আবেদন ফি ১৫০ টাকা জমা দেয়ার পর আবেদনকারীকে নির্ধারিত website-এ (www.xiclassadmission.gov.bd) Apply Online-এ ক্লিক করতে হবে। এরপর প্রদর্শিত তথ্য ছকে এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের রোল নম্বর, বোর্ড ও পাসের সন এবং রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়ে সঠিকভাবে এন্ট্রি করতে হবে।

এ বছর সারা দেশে ২১ লাখ ৩৫ হাজার ৩৩৩ শিক্ষার্থী এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় অংশ নেয়। যেখানে ১০ লাখ ৬৪ হাজার ৮৯২ জন ছাত্রী ও ১০ লাখ ৭০ হাজার ৪৪১ জন ছাত্র উত্তীর্ণ হয়েছে। এ বছর সারা দেশে পাসের হার ছিল ৮২ দশমিক ২ শতাংশ। এর মধ্যে সাধারণ বোর্ডে পাসের হার ৮২ দশমিক ৮০ শতাংশ, মাদরাসা শিক্ষাবোর্ডে পাসের হার ৮৩ দশমিক ৩ শতাংশ, ও কারিগরি শিক্ষাবোর্ডে পাসের হার ৭২ দশমিক ২৪ শতাংশ। এবার মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ৫ হাজার ৫৯৪ শিক্ষার্থী। 

সোনালীনিউজ/এইচএন

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue