বুধবার, ০১ এপ্রিল, ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬

করোনা আতঙ্ক

এক কোম্পানির ২৮ শ্রমিক হাসপাতালে, অন্য রোগিরা হাসপাতাল ছাড়ছেন

নীলফামারী প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০১ মার্চ ২০২০, রবিবার ১২:০৩ পিএম

এক কোম্পানির ২৮ শ্রমিক হাসপাতালে, অন্য রোগিরা হাসপাতাল ছাড়ছেন

নীলফামারী: নীলফামারীতে একটি কারখানার ২৮ জন নারী শ্রমিক করোনা আতঙ্কে সদর আধুনিক হাসপতালে ভর্তি হয়েছে।

শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) সকালে ১০ টায় সদরের উকিলের মোড় চেতাশার ঘুন্টির গোল্ডেন টাইমিং বিডি লিমিটেড কোম্পানীর কারখানায় এই ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, সকালে ওই কোম্পানির ১ নম্বর ফ্লোরে কেমিক্যালের গন্ধে একজন নারী শ্রমিক হঠাৎ জ্ঞান হারিয়ে মেঝেতে পড়ে যায়। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ওই শ্রমিক জ্ঞান হারিয়েছে এই গুজব ছড়িয়ে পড়লে আতঙ্কিত হয়ে ১ নম্বর ফ্লোরের বেশ কিছু শ্রমিক জ্ঞান হারায়। অনেকে আবার হুড়াহুড়ি করে বাহিরে বেরিয়ে আসতে গিয়ে আহত হয়। পরে আহত ও জ্ঞান হারিয়ে ফেলা শ্রমিকদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দুপুর ১২টা পর্যন্ত ওই কোম্পানির ২৮ জন শ্রমিককে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

এসময় হাসপাতালের ভর্তি থাকা অন্য রোগীরা করোনা ভাইরাস আতঙ্কে হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে যেতে শুরু করেন।

ওই ফ্যাক্টরীর লাইনম্যান লাকি আখতার বলেন, সকাল ৭টার দিকে শ্রমিকেরা এসে কাজে যোগ দেয়। তারা সকলেই যে যার মতো কাজ করছিল। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কর্তব্যরত একজন শ্রমিক হঠাৎ করে অসুস্থ্য হয়ে মেঝেতে লুটিয়ে পড়ে। প্রতিষ্ঠাণটি চীনের  কোম্পানী পরিচালনা করায় করোনা আতংক ছড়িয়ে পড়লে এই ঘটনা ঘটে। অসুস্থ্যদের দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে এসে ভর্তি করানো হয়।
 
এব্যাপারে গোল্ডেন টাইমিং বিডি লিমিটেডের জুনিয়র নির্বাহী অফিসার আবু বক্কর সিদ্দিক সাংবাদিকদের জানান, এক শ্রমিক কেমিক্যালের গন্ধে জ্ঞান হারালে অন্য শ্রমিকরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।

নীলফামারী আধুনিক হাসপাতালের কার্ডিওলজি বিভাগের সিনিয়র কনসালটেন্ট মো. আশিকুর রহমান বলেন, কোম্পানীর শ্রমিকরা গণহিস্টেরিয়া রোগে আক্রান্ত হয়েছে। যা একটি মনস্তাত্বিক রোগ। একজনের হলে অন্যরাও আতঙ্কে ওই রোগে আক্রান্ত হয়। তবে তাদের শরীরে করোনা ভাইরাসের কোন অস্তিত্ব নেই। এতে আতঙ্কিত হওয়ারও কিছু নেই।

সোনালীনিউজ/এজি/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue