বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬

এক ছবিতেই বাজিমাত

বিনোদন ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৭ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার ০২:০৮ পিএম

এক ছবিতেই বাজিমাত

ঢাকা : হলিউড অভিনেত্রী জেনিফার অ্যানিস্টন তার ভক্তদের রীতিমতো চমকে দিলেন। ১৫ অক্টোবর হঠাৎ করেই তিনি জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে অভিষেক করলেন। তাতে পুরোনো বন্ধুদের সঙ্গে একটি মাত্র ছবি শেয়ার করেন তিনি। অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি, এতেই প্রথম দিনে মাত্র ১৮ ঘণ্টায় তার ফলোয়ার সংখ্যা ৬৫ লাখ ছাড়িয়েছে!

জেনিফারের বন্ধু ও ভক্তরা যেন মুখিয়ে ছিলেন, কখন তিনি ইনস্টাগ্রামে আবির্ভূত হবেন। মঙ্গলবার ইনস্টাগ্রামে অভিষেক করেই জেনিফার তার বায়োগ্রাফিতে লেখেন, ‘আমার বন্ধুরা আমাকে জেন বলে ডাকে।’

এরপর তিনি যে ছবিটি শেয়ার করেছেন, তার ক্যাপশনে লেখেন, ‘এখন আমরা ইনস্টাগ্রামের বন্ধুও। হ্যালো ইনস্টাগ্রাম।’ এই একটি মাত্র ছবি শেয়ার করেন তিনি। বলা যেতে পারে ‘ব্লকবাস্টার’ ছবি। পুরোনো বন্ধুদের সঙ্গে এই দলবদ্ধ ছবিটি শেয়ার করে তিনি তার বন্ধুদের সঙ্গে মিলিত হওয়ার দারুণ একটি বার্তাই দিয়েছেন বলা যায়।

ছবিটিতে একসঙ্গে দেখা যায়, লিসা কুড্রো, কর্টনি কক্স, ডেভিড শোয়িমার, ম্যাট লে ব্লাঙ্ক ও ম্যাথিউ পেরিকে। এরা সবাই জেনিফার অভিনীত জনপ্রিয় টিভি সিরিজ ‘ফ্রেন্ডস’র সহ-অভিনেতা। এ বছর সিরিজটির ২৫ বছর পার হলো। এই এক ছবিতেই বাজিমাত হয়ে গেল। প্রথম দিনের ২৪ ঘণ্টাও পার হয়নি। মাত্র ১৮ ঘণ্টাতেই ৬৫ লাখ ভক্ত ও বন্ধুরা তাকে ইতোমধ্যে অনুসরণ করেছেন।

৫০ বছর বয়সী এই হলিউড তারকা ইনস্টাগ্রামকে রীতিমতো ক্রাশ করে ফেলেছেন তার বন্ধুদের সঙ্গে পুনর্মিলনীর ছবি শেয়ার করে।

এদিকে, দীর্ঘ ১৫ বছর পর ছোট পর্দায় অভিনয় করতে যাচ্ছেন হলিউড অভিনেত্রী জেনিফার অ্যানিস্টন। ‘দ্য মর্নিং শো’র মধ্য দিয়ে এক যুগেরও বেশি সময়ের বিরতি ভাঙতে চলেছেন এ অভিনেত্রী। তাকে শেষ টেলিভিশনে দেখা গেছে এনবিসির সিটকম ‘ফ্রেন্ড’-এ। ‘ফ্রেন্ডস’ সিরিজে তিনি রেচেল গ্রিনের ভূমিকায় অভিনয় করতেন। ফ্রেন্ডস শেষ হওয়ার পর অ্যানিস্টন অনেকগুলো চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। কিন্তু এবার তাকে একেবারে ভিন্ন ভূমিকায় দেখা যাবে টিভিতে।

জেনিফার অ্যাপল টিভির অরিজিনাল সিরিজ ‘দ্য মর্নিং শো’তে শুধু অংশই নেবেন না এটি নির্বাহী প্রযোজনাও করবেন। সব ঠিকঠাক থাকলে আগামী ১ নভেম্বর থেকে সিরিজটির শুটিং শুরু হবে। জানা গেছে, ‘দ্য মর্নিং শো’ সিরিজটির গল্প একটি সংবাদভিত্তিক অনুষ্ঠান নিয়ে, যেখানকার একজন উপস্থাপকের বিরুদ্ধে যৌন অসদাচরণের অভিযোগ রয়েছে। এই সিরিজের অ্যানিস্টনের সঙ্গে আরো থাকবেন রিজ উইদারস্পুন। উইদারস্পুন ২০০০ সালে ফ্রেন্ডস সিরিজে রেচেলের ডানপিটে ছোট বোন জিলের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন।

এদিকে, ২০১৭-তে এ অভিনেত্রী অ্যাপলকে এমন একটি সিরিজের ধারণা দিয়েছিলেন কিন্তু মিটু আন্দোলনের কারণে হঠাৎ করেই এ বিষয়ে ফিকশন শো যৌক্তিকতা হারায়। সিরিজের কাহিনিতে দেখা যাবে অ্যালেক্স লেভি চরিত্রটি তার সহ-উপস্থাপক মিচ কেসলারের (স্টিভ ক্যারেল) বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ আনলে কেসলারকে বরখাস্ত করা হয়।

জেনিফার অ্যানিস্টন শুধু অভিনেত্রীই নন, তিনি একাধারে চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক ও ব্যবসায়ী। মূলত আমেরিকার বিখ্যাত টিভি ধারাবাহিক ‘ফ্রেন্ডস’-এ অভিনয় করেই বিশ্বব্যাপী পরিচিতি পান। এর ফলে তাকে গোল্ডেন গ্লোব ও স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কার দেওয়া হয়। এমনকি মেনস হেলথ ম্যাগাজিন তাকে সর্বকালের সবচেয়ে যৌন আবেদনময়ী নারী হিসেবেও ঘোষণা দেয়।

এছাড়া হলিউড চলচ্চিত্রে তার বৈচিত্র্যপূর্ণ উপস্থিতি দর্শককে মুগ্ধ করেছে বহুবার। এর মধ্যে অফিস স্পেস, রিউমার হ্যাজ ইট, লেপ্রিকন ও ডিরেইলড’র মতো সুপারহিট সিনেমায় অভিনয় করে হলিউডে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন।

সোনালীনিউজ/এমটিআই