সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৩১ ভাদ্র ১৪২৬

এমপি হচ্ছেন জোবায়দা!

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০১ মে ২০১৯, বুধবার ০৭:১১ পিএম

এমপি হচ্ছেন জোবায়দা!

ঢাকা : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি ৬টি আসন পেয়েছে। এর মধ্যে ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের জাহিদুর রহমান ২৫ এপ্রিল শপথ নেন।

এরপর গত সোমবার শপথ নিয়েছেন আরো ৪ বিজয়ী সাংসদ। ফলে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছাড়া বাকি পাঁচজনই সাংসদ হিসেবে শপথ নিলেন।

এদিকে বিএনপি শপথ গ্রহণের পরই শুরু হয়েছে সংরক্ষিত নারী আসন নিয়ে আলোচনা। সংরক্ষিত নারী আসনে একটি আসন পাবে বিএনপি। কে আসছে এই আসনে? বিষয়টি নিয়ে সব মহলে কৌতুহল সৃষ্টি হয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিএনপির একাধিক সূত্র বলছে, দলের একটি বড় অংশই এই আসনে জিয়া পরিবারের সদস্যকে চাচ্ছেন। তাদের মতে, সংসদে বিএনপির যে প্রতিনিধিরা থাকছেন তার মধ্যে একজন জিয়া পরিবারের সদস্য থাকা প্রয়োজন।

এজন্য দলের কেউ কেউ প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান সিঁথিকে আনার পক্ষে মত দিচ্ছেন। আবার অনেকে মনে করছেন, তারেক রহমানের স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমান আসলে সেটা বেশি ভালো হয়।

তবে অনেকেই মনে করছেন- পুরো বিষয়টি নির্ভর করছে বেগম খালেদা জিয়ার সিদ্ধান্তের ওপর। খালেদা জিয়া সম্মতি দিলে এমনটি হতে পারে।

এছাড়া সংরক্ষিত এই আসনটিতে জিয়া পরিবারের বাইরের থেকে মনোনয়ন দেয়া হলে সংসদে যেতে অনেকে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন। তাদের মধ্যে রয়েছেন- দলটির ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান, মহিলা দলের সভানেত্রী আফরোজা আব্বাস, সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ, সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা ও নির্বাহী কমিটির সদস্য নিপুণ রায় চৌধুরী।

এ বিষয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর গণমাধ্যমকে বলেছেন, এ বিষয়ে আলাপ-আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। সময়মতো সবই জানা যাবে।

নারী সংরক্ষিত আসনে এমপি হচ্ছেন জোবায়দা না শর্মিলা : একাদশ জাতীয় সংসদে সদ্য শপথ নেওয়া বিএনপির ৫ নির্বাচিত সদস্যের পর এবার সংরক্ষিত নারী আসন নিয়ে শুরু হয়েছে আলোচনা। নিয়ম অনুযায়ী বিএনপি এখন সংসদে সংরক্ষীত একটি নারী আসন পাবে। কে আসছে সেই আসনে? বিষয়টি নিয়ে চলছে এখন সব মহলে সৃষ্টি হয়েছে কৌতুহল।

এবিষয়ে নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিএনপির একাধিক সূত্র জানিয়েছেন, দলের ভেতরে একটি বড় অংশ এই সংরক্ষীত নারী আসনে জিয়া পরিবারের একজন সদস্যকে চাচ্ছেন। তারা মনে করছেন, সংসদে বিএনপির যে প্রতিনিধিরা থাকছেন তার মধ্যে একজন জিয়া পরিবারের সদস্য থাকা প্রয়োজন।

তবে এই আসনের জন্য কেউ কেউ প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান সিঁথিকে আনার পক্ষে মত দিলেও, অন্যদিকে অধিকাংশেই মনে করছেন, তারেক রহমানের স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমান আসলে সেটা বেশি ভালো হয়।

তবে পুরো বিষয়টি নির্ভর করছে বেগম খালেদা জিয়ার সিদ্ধান্তের ওপর। খালেদা জিয়া সম্মতি দিলে এমনটি হতে পারে বলে মত তাদের। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর গণমাধ্যমকে বলেন, এ বিষয়ে আলাপ-আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। সময়মতো সবই জানা যাবে।

এদিকে সংরক্ষিত এই আসনটিতে জিয়া পরিবারের বাইরের থেকে মনোনয়ন দেয়া হলে সংসদে যেতে অনেকে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন। তাদের মধ্যে রয়েছেন, দলটির ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান, মহিলা দলের সভানেত্রী আফরোজা আব্বাস, সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ, সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা ও নির্বাহী কমিটির সদস্য নিপুণ রায় চৌধুরী।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ মনে করেন শর্মিলার চেয়ে জোবাইদা আসলে ভালো হতো। তিনি গণমাধ্যমকে আরও বলেন, শর্মিলা রহমান সিঁথিকে নিয়ে বিভিন্ন মতও আছে। সবচেয়ে ভালো হতো যদি ডা. জোবাইদা রহমান রাজনীতিতে আসতেন।

তবে পরিবারের কেউ রাজনীতিতে আসবে কি না, তা নির্ভর করছে খালেদা জিয়ার বেরিয়ে আসা বা তার সিদ্ধান্তের ওপর। এ ক্ষেত্রে তারেক রহমানের সিদ্ধান্ত কাজ করবে না বলেও তিনি মনে করেন।

সোনালীনিউজ/এমটিআই