বুধবার, ১৭ জুলাই, ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

এরশাদের কবর কোথায় হবে, মুখ খুললেন সাবেক স্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৯ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার ১০:১৬ পিএম

এরশাদের কবর কোথায় হবে, মুখ খুললেন সাবেক স্ত্রী

ঢাকা: জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে পাঞ্জা লড়ছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ। গত ৬ জুন থেকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমইচএ) ভর্তি আছেন তিনি। আজ ৯ জুলাই মঙ্গলবার জিএম কাদের বলেছেন তার ভাই এরশাদ চোখ মেলছেন।

এ দিকে, গত কিছুদিন ধরে এরশাদের শারীরিক অবস্থার অবনতির মধ্যেই দলটির নেতাকর্মীদের আলোচনায় এসেছে পার্টির চেয়ারম্যান মারা গেলে কোথায় কবর দেয়া হবে। গতকাল সোমবার সংবাদ সম্মেলন করে রংপুর অঞ্চলের নেতারা দাবী করেছেন, এরশাদের ওছিয়ত অনুযায়ী রংপুরের পল্লী নিবাসেই সাবেক এই রাষ্ট্রপতিকে যেন দাফন করা হয়।

এবার বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন তার সাবেক স্ত্রী বিদিশা-ও। আজ মঙ্গলবার এরশাদের সাবেক এই মুঠোফোনে বলেন, ‘স্যারকে রংপুরে সমাহিত করার ব্যাপারে রংপুরের প্রতিটি মানুষ একমত। আমিও তাদের অনুভূতির সাথে একমত পোষন করছি। আর যেহেতু পল্লী নিবাসটি স্যার এরিখ এরশাদকে দিয়ে গেছেন সেহেতু তাকে পল্লী নিবাসে সমাহিত করা হলে এরিখ সবচেয়ে সম্মানিত হবে। রংপুরের মানুষের অনুভূতিকে এরিখ সম্মান জানাবে।’

এর আগে গত ২৬ জুন জ্ঞান হারিয়ে রাজধানীর সিএমইচএ চিকিৎধীন আছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। সেখানে তিনি এখন জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে। গত ৩ জুলাই তারিখে এরশাদের অসুস্থ্যতা এবং তিনি মারা গেলে কোথায় সমাহিত করা হবে এ নিয়ে প্রেসিডিয়ামের বৈঠক হয়। আড়াইঘন্টা ব্যাপি বৈঠকে জাপার ৩৮ জন প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সংসদ সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

সেখানে এরশাদকে সমাহিত করার জায়গার ব্যাপারে কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারে নি। সেখানে জাতীয় নেতা হিসেবে এরশাদকে সেনানিবাস অথবা আসাদ গেটের বিপরীতে সংসদ ভবন প্রাঙ্গন, মোহাম্মদপুর আদাবরে কবরস্থান, জাতীয় তিন নেতার মাজারসহ বিভিন্নস্থানের কথা আলোকপাত হয়। কিন্তু সেখানে রংপুরে দাফনের ব্যাপারে কোন কথা হয়নি।

সোনালীনিউজ/এমএএইচ