মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

বিদিশার স্ট্যাটাস  

এরিকের কান্নায় দেশবাসীও কেঁদেছে, কোথায় স্বামীর লাশ কোথায় ছেলে?

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৫ জুলাই ২০১৯, সোমবার ০৪:৩২ পিএম

এরিকের কান্নায় দেশবাসীও কেঁদেছে, কোথায় স্বামীর লাশ কোথায় ছেলে?

ঢাকা: সাবেক রাষ্ট্রপতি, সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুর দিনে তার সাবেক স্ত্রী বিদিশা ছিলেন ভারতের আজমির শরিফ। সেখান থেকে ফেসবুকে এক আবেঘন স্ট্যাটাস দেন তিনি। সেখানে লিখেন এই জনমে দেখা না হলেও পরজন্মে দুজনের দেখা হবে, যেখানে থাকবে না কোনো রাজনীতি।

এরপর এরশাদের লাশ শেষবারের মতো দেখতে এবং একমাত্র ছেলে এরিক এরশাদের পাশে থাকতে দেশে ফিরেছেন সাবেক স্ত্রী বিদিশা। তবে দেশে ফিরে বাধার শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ করে ফেসবুকে আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি। 

সোমবার (১৫ জুলাই) দুপুর ১টার দিকে তিনি তার নিজ ফেসবুক আইডি থেকে এক স্ট্যাটসে এই অভিযোগ করেন। 

বিদিশার ফেসবুকে দেয়া স্ট্যাটাসটি সোনালীনিউজের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হল- 

“বাবার মৃত্যুতে আমার ছেলে এরিক এর কান্নায় দেশবাসীও কেঁদেছে। আমি পাগলের মতো ছুটে চলে এসেছি দেশে। কিন্তু দেশে এসেও বাধার শিকার আমি। কোথায় স্বামীর লাশ, কোথায় ছেলে? আমার সাথে এরিককে কথাও বলতে দিচ্ছে না। দেখা করা তো দূরের কথা। এমনিতেই আমার ছেলে প্রতিবন্ধী। এই সময় যেখানে মাকে বেশি প্রয়োজন তখন আমার ছেলেকে নিয়েও রাজনীতি। শেষ পর্যন্ত মা হিসেবে ছেলের জন্য যদি জীবন দিতে হয়, আমি তাই করবো!” 

এদিকে, এরশাদপুত্র এরিক কান্নাজড়িত কণ্ঠে তার বাবার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়ে বলেন, ‘আমার বাবা আর নেই, বাবা মারা গেছেন, কিছুতেই বিশ্বাস করতে পারছি না। সবাই আমার বাবার জন্য দোয়া করবেন। আল্লাহ যেন বাবাকে বেহেশত দান করে।’  

উল্লেখ্য, প্রায় ১৫ বছরে আগে বিদিশাকে বিয়ে করেছিলেন এরশাদ। তখন তারা ছিলেন রাজনৈতিক অঙ্গনের বহুল আলোচিত, যার রেশ এখনো রয়েছে। এরশাদ-বিদিশার একমাত্র সন্তান শাহতা জারাব ওরফে এরিক এরশাদ। এরপর ২০০৫ সালে বিচ্ছেদের পর এরিককে নিয়ে এরশাদ-বিদিশার যুদ্ধ আদালত পর্যন্ত গড়ায়। পরে আদালতের রায় অনুযায়ী এরিকের দায়িত্ব পান এরশাদ।

সোনালীনিউজ/এমএএইচ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue