রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬

গ্রিনলাইনকে হাইকোর্ট

‘কঠোর হতে বাধ্য করবেন না’

আদালত প্রতিবেদমক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২২ মে ২০১৯, বুধবার ০২:১২ পিএম

‘কঠোর হতে বাধ্য করবেন না’

ঢাকা : গ্রিন লাইন পরিবহনের বাসচাপায় পা হারানো প্রাইভেটকারের চালক রাসেল সরকারকে ক্ষতিপূরণের টাকা পরিশোধ করতে নির্দেশনা দেওয়ার পরেও তা পরিশোধ না করায় অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট। রাসেল সরকারের ক্ষতিপূরণ বাবদ বাকি ৪৫ লাখ টাকা দ্রুত প্রদানেরও নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

আদালত বলেছেন, ‘আমাদের নমনীয়তাকে দুর্বলতা ভাববেন না। আমরা কঠোর হতে চাই না। কিন্তু আমাদের কঠোর হতে বাধ্য করবেন না।’

বুধবার (২২ মে) বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের বেঞ্চ এসব মন্তব্য করেন।

শুনানির শুরুতে গ্রিনলাইনের আইনজীবী মো. ওজিউল্লাহ বলেন, ‘আদালতের সর্বশেষ আদেশের পর গ্রিনলাইন কর্তৃপক্ষ আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেনি। তাদের আইনজীবী থেকে আমার নাম প্রত্যাহার করতে চাই।’

এ সময় পা হারানো রাসেল সরকারের আইনজীবী শামসুল হক রেজা বলেন, ‘আমাদের সঙ্গেও কোনো যোগাযোগ করছে না গ্রিনলাইন কর্তৃপক্ষ। রাসেলকে চিকিৎসা খরচ তিন লাখ টাকা দেওয়ার পর আর কোনো খরচও দিচ্ছে না। এজন্য হাসপাতাল থেকে বাসায় এসে চিকিৎসা করতে হচ্ছে তাঁকে।’

আদালত বলেন, ‘আমরা অনেক নমনীয়ভাবে কথা বলেছি, গ্রিনলাইন কর্তৃপক্ষ কখনও বলে নাই যে, আমাদের এই সমস্যা, আমরা এত টাকা দিতে পারব না। আবার রাসেলের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে বিষয়টা মীমাংসা করারও চেষ্টা করেনি।’

আদালত বলেন, ‘যারা ব্যবসা করে তাদের মানবিক মূল্যবোধ থাকা উচিত। কিন্তু এক্ষেত্রে গ্রিনলাইন কর্তৃপক্ষের আচরণ আমাদের কাছে ভাল লাগেনি।’

এর আগে গত বছর ২৮ এপ্রিল মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারে কথা কাটাকাটির জেরে গ্রিন লাইন পরিবহনের বাসচালক ক্ষিপ্ত হয়ে প্রাইভেটকার চালকের ওপর দিয়েই বাস চালিয়ে দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই প্রাইভেটকারচালক রাসেল সরকারের (২৩) বাম পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

সোনালীনিউজ/এমটিআই