মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২৭ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫

কর্মসূচি স্থগিত, পরীক্ষায় অংশ নেবে শিক্ষার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার ০৭:৪৯ পিএম

কর্মসূচি স্থগিত, পরীক্ষায় অংশ নেবে শিক্ষার্থীরা

ঢাকা : পর্যায়ক্রমে দাবি মেনে নেয়ার আশ্বাসে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা তাদের কর্মসূচি  স্থগিত করেছে। শুক্রবার (৭ ডিসেম্বর) থেকে পরীক্ষায় অংশ নেবে তারা।

বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) শিক্ষার্থীদের দাবি অনুযায়ী অরিত্রী অধিকারীর পরিবারের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন বিদ্যালয়টির গভর্নিং বডির সদস্যরা। একই সঙ্গে প্রয়োজনে তারা পদত্যাগ করার কথাও জানিয়েছেন।  

স্কুলের গভর্নিং বোর্ডের চেয়ারম্যান গোলাম আশরাফ তালুকদার সাংবাদিকদের বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের স্বার্থে প্রয়োজনে পদত্যাগ করতেও রাজি আছি। এ সময় আন্দোলনরত ছাত্রীদের শিক্ষা কার্যক্রমে ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

গোলাম আশরাফ তালুকদার বলেন, শিক্ষার্থীদের শর্ত ছিল যে গভর্নিং বডির সব সদস্যকে পদত্যাগ করতে হবে। এখন গভর্নিং বডির সব সদস্য পদত্যাগ করবেন কি না, সে বিষয়ে আমি গভর্নিং বডির সভায় এ প্রস্তাব করবো যে শিক্ষার্থীদের এ অভিমত আছে। গভর্নিং বডি ভেঙ্গে দেয়ার সিদ্ধান্ত মন্ত্রণালয় গ্রহণ করতে পারেন।

তিনি আরও বলেন, সব শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকদের কাছে আমার অনুরোধ থাকবে, শিক্ষার্থীদের স্বার্থ বিবেচনা করে, এই উদ্ভুত পরিস্থিতিকে পরিহার করে, সবাই মিলে আমরা আবার আমাদের পাঠ্য কার্যক্রমে চলে আসি। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যেন সুষ্ঠু ভাবে চলে সে ব্যবস্থা গ্রহণ করা দরকার।

এদিকে, অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনায় দোষীদের শাস্তির দাবিতে আজও শিক্ষার্থীরা স্কুলের সামনে অবস্থান নেয় এবং গভর্নিং বডির সদস্যদের পদত্যাগসহ ৬ দফা দাবিতে আন্দোলন শুরু করে। এ দাবি না মানলে ক্লাস-পরীক্ষাসহ স্কুলের কোনো কার্যক্রমে যোগ দেবে না বলে তারা ঘোষণা দেয় শিক্ষার্থীরা।

৬ দফা দাবির মধ্যে রয়েছে-  অধ্যক্ষের পদত্যাগ এবং ৩০৫ ও ৩০৬ ধারায় আত্মহত্যার প্ররোচণার অপরাধে তার শাস্তি নিশ্চিত করা, প্রত্যেক শিক্ষার্থীর সমন্বয়ে তাদের নিজস্ব আচরণ ও চারিত্রিক বৈশিষ্টের ওপর ভিত্তি করে এবং মানসিক স্বাস্থ্যের কথা বিবেচনা করে আলাদা যত্ন নিশ্চিত করা, কোনোভাবেই কোনো শিক্ষক শিক্ষার্থীর ওপর শারীরিক ও মানসিক চাপ এবং অত্যাচার প্রয়োগ না করা, কথায় কথায় শিক্ষার্থীদের বহিষ্কারের হুমকি বন্ধ করা, পাঁচ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী অভিভাবক শিক্ষক ও কর্মরত সকলের মানসিক সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে মানসিক পরামর্শদাতা  নিয়োগ করা, গভর্নিং বডির সবার পদত্যাগ ও  অরিত্রীর মা-বাবার সঙ্গে দুর্ব্যবহারের জন্য অধ্যক্ষ ও বিদ্যালয় কর্তৃক প্রকাশ্যে ক্ষমা প্রথনা করা।

উল্লেখ্য, ভিকারুননিসা স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষকদের কাছে বাব-মা’র অপমান সইতে না পেরে আত্মহত্যা করেন বিদ্যালয়টির নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী অরিত্রী অধিকারী।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue