সোমবার, ১৭ জুন, ২০১৯, ৩ আষাঢ় ১৪২৬

কৃষকের জমি দখল করতে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর হুমকি

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১১ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার ০৭:৫১ পিএম

কৃষকের জমি দখল করতে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর হুমকি

বাগেরহাট: জেলার শরণখোলায় কৃষকদের চাষাবাদের জমি দখলের জন্য গুলির নাটক সাজানো হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার (১১ জুন) দুপুরে শরণখোলা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে উপজেলার জানের পাড় গ্রামের বাসিন্দা কৃষক ফরিদ আহমেদ খান এমন অভিযোগ করেন।

লিখিত বক্তব্যে তিনি দাবি করেন, আসন্ন আমন মৌশুমকে সামনে রেখে তিনিসহ তার এলাকার ১৯ জন কৃষকের ভোগদখলীয় চাষাবাদের ১৭.৮৫ একর ফসলি জমি জবর দখল করতে স্থানীয় প্রভাবশালী মহারাজ হাওলাদার, রফিকুল হাওলাদার, শাহ আলম হাওলাদার, আমির হাওলাদার ও ইব্রাহীম হাওলাদারসহ একটি চক্র গত ৬ জুন গভীর রাতে গুলির নাটক সাজিয়ে প্রতিপক্ষ রফিকুলকে আহত দেখান।

ওই ঘটনায় স্থানীয় কৃষকদের ফাঁসাতে ফরিদ খানের ভাই আশরাফুল খানের বিরুদ্ধে গুলির অভিযোগ তুলে নতুন করে তাদের জব্দ করতে প্রশাসন সহ সাংবাদিকদের কাছে মিথ্যা অভিযোগ করেন। জমি জমা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে তার ভাই আশরাফুল ইসলাম বাদী হয়ে ২০১৪ সালে মহারাজ গ্রুপের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার প্রতিশোধের পাশাপাশি তাদের ভোগদখলীয় জমি দখল করতে নতুন করে গুলির নাটক সাজিয়ে তাদেরকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসাতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন মহারাজ গ্রুপ। এছাড়া মহারাজ চক্রের সদস্যরা এলাকায় জমি দখল, ভ্যান রিকশাসহ বিভিন্ন বসত বাড়িতে চুরি ডাকাতির ঘটনা ঘটাচ্ছে।

এদের বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করলে তাকে বিভিন্ন মামলায় ফাঁসানো হয় বলে সংবাদ সম্মেলনে দাবি করেন ফরিদ। তাই প্রতিপক্ষ রফিকুলের পায়ের গুলির ঘটনাটির সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে মহারাজ গ্রুপের নানা মুখি ষড়যন্ত্রের হাত থেকে রেহাই পাওয়ার জন্য প্রশাসনের কাছে অনুরোধ জানান কৃষক ফরিদ। এমনকি মহারাজ গ্রপের একাধিক মিথ্যা মামলায় স্থানীয় কৃষকরা ইতোপূর্বে বহু হয়রানি শিকার হয়েছেন।

তবে এ বিষয়ে মহারাজ হাওলাদারের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, রফিকুলের বাড়িতে গভীর রাতে গুলির ঘটনার কিছুই জানেন না তিনি। এছাড়া সে দীর্ঘদিন ধরে এলাকার বাইরে ঠিকাদারী কাজে নিয়োজিত রয়েছেন। ফরিদসহ একটি মহল সমাজে তার সুনাম ক্ষুন্ন করতে সংবাদ সম্মেলনে তার বিরুদ্ধে কাল্পনিক অভিযোগ করেছেন।

তিনি আরো বলেন, তার নেতৃত্বে ওই এলাকায় কারও সম্পত্তি দখল করার প্রমাণ নেই। এমনকি ফরিদ ও তার পরিবার ইতোমধ্যে একাধিক বার হয়রানিমূলক মামলায় তাকে আসামি করেছেন করেছেন।

সোনালীনিউজ/এমএইচএম

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue