শনিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬

কৃষক বাঁচাতে ডিসিকে ফোনে যা বললেন মাশরাফি

ক্রীড়া প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২০ মে ২০১৯, সোমবার ০৫:২৮ পিএম

কৃষক বাঁচাতে ডিসিকে ফোনে যা বললেন মাশরাফি

ছবি সংগৃহীত

ঢাকা: প্রথমবার ত্রিদেশীয় সিরিজ জয়ের তরতাজা ঘ্রান নিয়ে বিশ্বকাপ খেলতে ইংল্যান্ডে উড়াল দেয়ার কথা বাংলাদেশ দলের। সাকিব, মুশফিকসহ ১৩ ক্রিকেটার গিয়েছেনও। কিন্তু লন্ডনে না গিয়ে সোজা দেশে চলে এসেছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তাজা। কারণ, তিনি তো শুধুই খেলোয়াড়ই নন। একজন জাতীয় সংসদ সদস্য। এলাকার ভাল মন্দ দেখার দায়িত্ব তার উপর। সম্প্রতি ধানের নায্য মূল্য পাচ্ছে না কৃষক।  

দেশে ফিরে তাই প্রথমেই কৃষকদের পাশে দাঁড়ালেন নড়াইল-২ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজা। নড়াইলের জেলা প্রশাসককে (ডিসি) ফোন দিয়ে সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে ধান কেনার নির্দেশ দিলেন মাশরাফি।

দেশে ফিরে বিভিন্ন মাধ্যমে তিনি জানতে পারেন কৃষকরা ধানের ন্যায্য মূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। তাদের উৎপাদন খরচও উঠছে না। যেখানে এক মণ ধান সরকার ক্রয় করছেন এক হাজার ৪০ টাকায় সেখানে নড়াইলের হাট-বাজারে কৃষকদের ধান বিক্রি করতে হচ্ছে সাড়ে ৬০০ থেকে ৭০০ টাকা।

বিষয়টি জানার পর রোববার রাতে সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজা জেলা প্রশাসক আনজুমান আরাকে ফোন করে সরাসরি যাতে কৃষকদের কাছ থেকে ধান ক্রয় করা হয় সে বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। কৃষকদের উৎপাদিত পণ্য নিয়ে কেউ যেন ছিনিমিনি খেলতে না পারে সে বিষয়ে সতর্ক থাকার জন্য বলেন মাশরাফি।

তিনি আরও বলেন, কোনো সিন্ডিকেটের মাধ্যমে ধান ক্রয় করা হচ্ছে এমন তথ্য প্রমাণ পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে, সে যেই হোক না কেন।

নড়াইল জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা মাশরাফির ফোনের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ‘আমরাও চাই কৃষকরা যাতে তাদের কষ্টে উৎপাদিত ধানের ন্যায্য মূল্য পায়। এ জন্য সকলের সহযোগিতাও কামনা করছি।

বিষয়টি নড়াইল সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো: জাহিদুল ইসলাম বিশ্বাস নিশ্চিত করে জানান, নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি আমাকে নিয়ম মেনে সরাসরি কৃষকদের থেকে ধান ক্রয়ের জন্য বলেন। তিনি আমাকে আরো বলেছেন, আপনারা অনিয়ম না মেনে কাজ করলে আমি আপনাদের সাথে নেই।

এ দিকে কৃষি অফিসার ধান সংগ্রহ কমিটির সম্পর্কে জানান, বাছাই কমিটি কৃষক তালিকা যাচাই-বাছাই করবেন, এ ব্যাপারে আপনাদের সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন।

এদিকে নড়াইলের জেলা খাদ্য কর্মকর্তা মনোতোষ কুমার মজুমদার (ভারপ্রাপ্ত) জানান, জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা স্যার আমাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এবং এমপি মহোদয়ের নির্দেশনায় আগামি ২১ মে মঙ্গলবার সকাল ১১টায় সদরের মাইজপাড়া ইউনিয়নে সরাসরি মাঠ পর্যায় কৃষকদের থেকে ধান ক্রয় শুরু করা হবে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/জেডআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue