শনিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৯, ৩ কার্তিক ১৪২৬

বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে ধানমন্ডি ৩২ পর্যন্ত পদযাত্রা

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, রবিবার ০৪:১৩ পিএম

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে ধানমন্ডি ৩২ পর্যন্ত পদযাত্রা

ঢাকা : শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় বাংলাদেশ এক্সট্রা- মোহরার (নকল নবিস) এসোসিয়েশনের উদ্যোগে এক্সট্রা মোহরার (নকল নবিসদের) চাকুরি রাজস্ব খাতে অন্তর্ভূক্তির দাবিতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে ধানমন্ডি ৩২ পর্যন্ত পদযাত্রা ও বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

সারাদেশের কেন্দ্রীয় ও জেলার প্রতিনিধিরা অবস্থান কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন। পদযাত্রাটি শহীদ মিনার হতে কাটাবন দিয়ে সায়েন্স ল্যাবরেটরী হয়ে ৩২ এ গিয়ে পৌঁছায়। এসময় পদযাত্রায় নেতৃত্ব দেন সংগঠনের সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক ড. আ.ক.ম. জামাল উদ্দিন, অধ্যাপক, সমাজ বিজ্ঞান বিভাগ ও সিনেট সদস্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, আহ্বায়ক, মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ, কেন্দ্রীয় কমিটি, উপদেষ্টা, বাংলাদেশ এক্সট্রা-মোহরার (নকল নবিস) এসোসিয়েশন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শেখ এনামুল হাসান রোমেল, বিইএমএ সভাপতি মো. আমিনুল ইসলাম বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক আল মামুন, মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় শাখার সহ সভাপতি মো. আব্দুল কুদ্দুস সুমন, সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাবুদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ রানা সহ কেন্দ্রীয় ও জেলা নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই সংগঠনের সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, আমরা আমাদের ন্যায্য অধিকারের জন্য লড়াই করছি। এ লড়াই ১৮ হাজার এক্সট্রা মোহরার নকল নবিসদের। আমাদের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত কোন বাধা কোন গ্রেফতার আমাদেরকে দমন করতে পারবে না।

ইতিপূর্বে আমরা যতগুলো অনুষ্ঠান করেছি প্রত্যেকটি অনুষ্ঠানে আমাদেরকে বাধা প্রদান করা হয়েছে। আমাদের নেতাকর্মীদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আমাদের উপর অমানবিক নির্যাতন চালানো হয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ইচ্ছা করলেই যেকোন মুহুর্তেই আমাদের এই দাবি পূরণ হবে।

তিনি আমাদের এই দাবির পক্ষে বিরোধী দলীয় নেতা হিসেবে যখন দায়িত্ব পালন করছিলেন তখন বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে এক সমাবেশে তার বক্তব্যে আমাদের সমর্থন জানিয়েছিলেন। সময়ের ব্যবধানে তিনি সেই কথা ভুলে গেলেন কিনা আজকে আমাদের প্রশ্ন জাগছে। আমরা যারা মাঠে রয়েছি তারা সকলেই বঙ্গবন্ধুর আদর্শের অনুসারী।

আওয়ামী লীগের অন্যতম সহযোগী সংগঠন জাতীয় শ্রমিক লীগের অন্তর্ভূক্ত আমাদের এই সংগঠন। এখন প্রশ্ন জাগে যেই দলটি সমর্থন জানিয়ে আমাদের জীবন যৌবন পার করে দিলাম সেই দল ক্ষমতায় থাকতে কেন আমাদের দাবি পূরণ হবে না।

প্রধান অতিথি বলেন, আপনারা শান্তিপূর্ণ ভাবে একের পর এক কর্মসূচি পালন করছেন। আমি দেখেছি ইতিপূর্বে আপনাদের কর্মসূচিতে পুলিশ বাধা সৃষ্টি করলেও আপনারা কখনো বেপরোয়া হননি। আমি বিশ্বাস করতে চাই আপনাদের ন্যায়সঙ্গত দাবির প্রতি সরকার সহানভুতিশীল হবেন। অচিরেই প্রধানমন্ত্রী আপনাদের দাবি মেনে আপনাদের অধিকার ফিরিয়ে দেবেন। বেশীদিন রাজপথে আপনাদের পরিশ্রম করতে হবে না।

পদযাত্রা শেষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে নেতৃবৃন্দ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন এবং শপথ করেন দাবি না আদায় না হওয়া পর্যন্ত তাদের সংগ্রাম অব্যাহত থাকবে।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue