বৃহস্পতিবার, ২৮ মে, ২০২০, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

কোরআন শিক্ষককে গাছে বেঁধে নির্যাতন, গ্রেফতার ২

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০১ মে ২০২০, শুক্রবার ০৭:৫১ পিএম

কোরআন শিক্ষককে গাছে বেঁধে নির্যাতন, গ্রেফতার ২

দিনাজপুর : বীরগঞ্জে কোরআনের শিক্ষক কিশোরকে গাছে বেঁধে নির্যাতন ঘটনায় থানায় মামলা, নির্যাতনকারী শ্যালক-দুলাভাইকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

উপজেলার পাল্টাপুর ইউনিয়নের ঘোড়াবান্দ কেরানীপাড়ায় মোঃ মিনহাজ (১৫) নামে এক কিশোরকে গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের, নির্যাতনকারী শ্যালক-দুলাভাইকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

বীরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল মতিন প্রধান গত বৃহস্পতিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুক) ঘটনার ভিডিও চিত্র প্রত্যক্ষ করে নির্যাতিত কিশোরের স্বজনদের ডেকে ঘটনার বিস্তারিত জেনে-শুনে মামলা রুজু করেন।

উপজেলার পাল্টাপুর ইউনিয়নের ঘোড়াবান্দ কেরানীপাড়া গ্রামের হাবিবর রহমানের ছেলে আবু বকর সিদ্দিক (৪৫) তার স্ত্রী মোছাঃ রমেনা বেগম (৪০) ও সহযোগী রমজান আলীর ছেলে আশরাফুল ইসলাম (২৫) কে আসামী করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানান, আসামীর বাড়ীতে আবু বকরের ছোট মেয়ে আফরোজা ও ছেলে রোহানকে আরবী শিক্ষা দিয়ে আসছিল মিনহাজ। বুধবার সকালে প্রাইভেটের টাকা চাইলে তাকে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে ওই শিক্ষক মিনহাজ (১৫) কিশোরকে গাছের সাথে বেঁধে বাঁশের লাঠি দিয়ে নির্যাতন চালায়। এতে গুরুত্বর আহত হয়। স্থানীয় মোঃ নুর, রফিকুল ইসলাম ও হাফিজুল আহত মিনহাজকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

নির্যাতিত কিশোরের বাবা বাদী হয়ে থানায় ফৌজদারি আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। যাহার মামলা নং- (৪) ২০২০ ধারা ৩৪২.৩২৩.৩২৫.৩০৭.৫০৬.১১৪.। পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থলে গিয়ে শ্যালক-দুলাভাই আবু বকর সিদ্দিক ও আশরাফুল ইসলামকে গ্রেফতার করে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করেছে। 

সোনালীনিউজ/এসিজি/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue