শনিবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৯, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

কয়েকটি ছবি ও কিছু কথা

সোনালীনিউজ ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৯ আগস্ট ২০১৯, বৃহস্পতিবার ০৫:২৯ পিএম

কয়েকটি ছবি ও কিছু কথা

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষিকার একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ঘুরেফিরে দেখা যাচ্ছে। অনেকেই বিভিন্ন ধরণের মন্তব্য করছেন ছবিটির নিচে।

কেউ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সমালোচনা করছেন আবার কেউ এই শিক্ষিকাকে সাধুবাদ জানাচ্ছেন। 

এই ছবিগুলো পোস্ট করে সাঈদুল আসলাম নামের একজন তার ক্যাপশনে লিখেছেন-
১. কেউ আপেল দেখে খাবার চিন্তা করে আর নিউটন সূত্র আবিস্কার করেন!!
Be positive!! 
২. এখানে ঘুমন্ত সন্তানকে( প্রায় ১৫ কেজি) কোলে নিয়ে ক্লাস নিতে "মা" শিক্ষিকার কী আরাম লাগছে!!
৩. শিক্ষিকা বাচ্চা কোলে নিয়েও "দাড়িয়ে" ক্লাস নিচ্ছেন!! 
৪. মা শিক্ষিকার ক্লাস নিয়ন্ত্রণ ও ঠিক আছে দেখা যাচ্ছে..
৫. বাচ্চাটা তো অসুস্থও হতে পারে!!
৬. এই বচ্চাটা যদি আপনি হতেন --- তা হলে কী এভাবে চিন্তা করতে পারতেন!!!

এই পোস্টে নিচে হাসেম সিকদার নামের একজন লিখেছেন, “সন্তানও চাকরি দুটো দায়িত্ব একা পালন করতে তার কতটা কষ্ট হচ্ছে তা চাকরিজীবী মা ছাড়া আর কেউ বুঝবেনা।”

নাদীসা পরাভীন ডলি নামে েএকজন লিখেছেন, “একজন মায়ের কাছে সন্তানের থেকে বড় কিছুই নাই!!
শতকোটি সালাম এই মা কে!
যিনি সন্তেনকে বুকে আগলে নিজের কর্তব্য যথাযথ ভাবে পালন করছেন!”

অপর এক ব্যক্তি লিখেছেন, “এগুবে। পড়া তো মাথায়, বাচ্চা কোলে। আর যে সময় কোলে নিয়েছে তাই ছবি নেয়া হয়েছে। সব সময় নিশ্চই বাচ্চা কোলে থাকেনা। আর ভাই মা ই বা তার সন্তান কে কোথায় ফেলবে। আসলে আমি মনে করি প্রাইমারির পড়াও এত কঠিন না,আবার প্রতিদিন পড়িয়ে মুখস্তও হয়।তাই বাচ্চা কোলে নিয়ে খুব বেশী ক্ষতি হওয়ার কথা নয়। যে রাধে সে চুলও বাধে।”

সোনালীনিউজ/এইচএন

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue