বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

খালেদার বাথরুমে সিসি ক্যামেরা বসানো দরকার : রাঙ্গা

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৮ জুন ২০১৯, শুক্রবার ১২:২০ পিএম

খালেদার বাথরুমে সিসি ক্যামেরা বসানো দরকার : রাঙ্গা

ঢাকা : দীর্ঘদিন যাবত কারাগারে অবস্থানরত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বাথরুমে ক্লোজড সার্কিট (সিসি) ক্যামেরা বসানো প্রয়োজন। এমনটাই মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) মহাসচিব ও সংসদের বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ মশিউর রহমান রাঙ্গা। তিনি বলেন, ‘তা না হলে তিনি কারাগার থেকে বের হয়ে যেতে পারেন।’

বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) বিকালে জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত ২০১৯-২০ অর্থ বছরের বাজেট সংক্রান্ত নানা বিষয়ে আয়োজিত সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

কারাগারে জাপা চেয়ারম্যান এরশাদের ওপর চালানো নির্যাতন প্রসঙ্গে রাঙ্গা বলেন, 'আমার নেতাকে যেখানে রাখা হয়েছিল, সেখানে বাথরুম পর্যন্ত সিসি ক্যামেরা বসানো ছিল। বলা হয়েছিল, সে লাফ দিয়ে বের হয়ে যেতে পারেন। অথচ তখনকার প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া নিজেও জানতেন না, একদিন তাকেও জেলে যেতে হবে।'

মশিউর রহমান রাঙ্গা তার বক্তব্যে বলেছেন, এরশাদ সাহেবের সময় যেহেতু কোনো লোককে দেখতে যাওয়ার সুযোগ দেওয়া হয় নাই, এখন উনার (খালেদা জিয়ার) সঙ্গে যে নারীকে দেওয়া হয়েছে, তাকে প্রত্যাহার করে নেওয়া উচিত। তার বাথরুমে সিসি ক্যামেরা বসানো উচিত, নয়তো উনিও বের হয়ে যেতে পারেন।

সংসদের বিরোধী দলীয় এই চিফ হুইপ আরও বলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে আমাদের নেতা এইচ এম এরশাদ বলতেন, আমরা সরকারের সঙ্গে থাকব। যেহেতু আমরা একসঙ্গে নির্বাচন করেছি, সরকারে আমরা থাকতে পারতাম; কিন্তু যেহেতু সংসদে বিরোধী দলের প্রয়োজন। সে কারণেই আমরা বিরোধী দলের একটা অবস্থানে রয়েছি। সেই বিরোধী দলেও বিএনপির পাঁচজন রয়েছে।

জাপা মহাসচিব এও বলেছিলেন, নিয়ম অনুযায়ী বিরোধী দলের সদস্যদের সংসদে বক্তব্য রাখতে হলে বিরোধী দলের প্রধান হুইপের কাছ থেকে সময় নিতে হয়। তারা এসে আমার কাছ থেকে সময় নিচ্ছে, আবার আমাদের বিরুদ্ধে আজে-বাজে উক্তি করছে।

আমি তাদের সময় দিচ্ছি উল্লেখ করে রাঙ্গা বলেন, সময় নিয়ে তারা নানা জায়গায় আমাদের পার্টির চেয়ারম্যানকে নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য করছেন। এ ধরনের অশ্লীল ভাষা কেবল বিএনপির নেতাকর্মীরাই বলতে পারে।

সংসদে বিএনপিকে উদ্দেশ করে বিরোধী দলীয় এই চিফ হুইপ বলেছেন, ‘সেই তো নথ খসালি, তবে কেন লোক হাসালি। বিএনপির শাসন আমলে আমার ছেলেকে অপহরণ করা হয়। তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া আমাকে বলেছিলেন পিনুর (তারেক রহমান) সঙ্গে কথা বলতে। আমি যেহেতু আগে কখনো হাওয়া ভবনে যাইনি তখনও যাইনি, কারণ সেখানে গেলেই একটা পরিস্থিতি সৃষ্টি করত। যেহেতু তাদের সঙ্গে তখন আমাদের একটা সমঝোতা হওয়ার কথা ছিল।’

সোনালীনিউজ/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue