সোমবার, ০১ জুন, ২০২০, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

গৃহশিক্ষকের আপত্তিকর ছবি তুলে দুই সন্তানের মাকে গণধর্ষণ

রাজাপুর (ঝালকাঠি) প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৫ মে ২০২০, মঙ্গলবার ০৪:৫২ পিএম

গৃহশিক্ষকের আপত্তিকর ছবি তুলে দুই সন্তানের মাকে গণধর্ষণ

ঝালকাঠি : ঝালকাঠির রাজাপুরে দুই সন্তানের জননী (৪০) কে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার (৪ মে) রাতে উপজেলার গালুয়া ইউনিয়নের পুলিয়াখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তরা পলাতক রয়েছে। এ ঘটনায় রাতেই ধর্ষিতাকে ঘটনা স্থল থেকে উদ্ধার করে পুলিশ এবং জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অভিযুক্ত রায়হান মোল্লার বাবা ফারুক মোল্লাকে থানায় আনা হয়েছে। 

অভিযুক্তরা হলো, পুটিয়াখালী গ্রামের মৃত আব্দুস সত্তার মুন্সি ছেলে রিসন মুন্সি (৪০) ও একই এলাকার  ফারুক মোল্লা ছেলে রায়হান মোল্লা (২০)। ভুক্তভোগীর স্বামী জানায়, গতকাল সোমবার রাত ৮টার দিকে গৃহবধূর ছোট ছেলেকে পড়াতে আসেন গৃহশিক্ষক ইলিয়াস হোসেন। এ সময় স্থানীয় রিপন মুন্সি ও রায়হান মোল্লাসহ কয়েক যুবক বাড়িতে এসে গৃহবধূর সাথে গৃহশিক্ষকের অনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে, এমন অভিযোগ এনে গৃহশিক্ষককে অকথ্যভাষায় গালমন্দ করে। একপর্যায় তাদের দুজনকে একসাথে করে বেশকিছু আপত্তিকর ছবি তোলে রিপন ও রায়হান। পরে ওই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকী দিয়ে রিপন ও রায়হান দুজনে গৃহবধূকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এরপর ধর্ষণকারীরা চলে গেলে রাত ১টার দিকে গৃহবধূ তার স্বামীকে ফোনে বিষয়টি জানায়। পরে স্বামী ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিলে রাজাপুর থানা পুলিশ রাত ৩টার দিকে গৃহবধূ ও গৃহশিক্ষককে উদ্ধার করে। 

গৃহবধূর স্বামী মো. হায়দার আকন বলেন, ‘গত দেড়মাস বাড়িতে থাকার পর গতকাল সোমবার সকালে কর্মস্থল খুলনায় চলে যাই। এই সুযোগে স্থানীয় বখাটে রিপন ও রায়হান তাদের দলবল নিয়ে প্রথমে ঘরে লুটপাটসহ আমার স্ত্রীকে ধর্ষণ করে। আমরা এ বিষয়ে আইনের আশ্রয় নেব।’ 

রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাহিদ হোসেন বলেন, ‘গৃহবধূকে উদ্ধার করা হয়েছে। তাঁর স্বামী খুলনা থেকে রাজাপুরের উদ্দ্যেশে রওয়ানা হয়েছেন। তিনি এসে মামলা করতে চাইলে মামলা হবে। এরপর তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

সোনালীনিউজ/এনএ/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue