রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৫ আশ্বিন ১৪২৭

গ্রীষ্মের তাপে করোনার প্রকোপ কমবে, আশাবাদী বিজ্ঞানীরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৬ মার্চ ২০২০, বৃহস্পতিবার ১২:৩৫ পিএম

গ্রীষ্মের তাপে করোনার প্রকোপ কমবে, আশাবাদী বিজ্ঞানীরা

ঢাকা: ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস থেকে বাাঁচার আশার আলো দেখছেন বিজ্ঞানীরা। শীত শেষ হয়ে গ্রীষ্মের আগমন ঘটছে। তাই এ মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নতুন আশার কথা শোনাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। তারা বলছেন, উষ্ণ এবং রৌদ্রজ্জ্বোল আবহাওয়া করোনার বিস্তার কমিয়ে আনতে সহায়তা করবে।

শ্বাসযন্ত্রের বেশ কিছু সংক্রমণ আছে যা আবহাওয়া এবং বিভিন্ন মৌসুমের ওপর নির্ভর করে। কোভিড-১৯ যদি অন্যান্য সংক্রমণের মতো হয় তবে সামনের দিনগুলো করোনার বিস্তার কমাতে সহায়তা করবে। এটা দীর্ঘমেয়াদী না হলেও সাময়িক সময়ের জন্য স্বস্তি পাবে বিশ্ব।

মেরিল্যান্ড ইন্সটিটিউট অব ভাইরোলজির সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ সাজাদি বলেন, আমরা এখন পর্যন্ত যেসব তথ্য পেয়েছি তার ওপর ভিত্তি করে বলা যায় যে, আবহাওয়া যখন উষ্ণ থাকে তখন মানুষ থেকে মানুষে ভাইরাসের ছড়িয়ে পড়া কঠিন হয়ে পড়ে।

অধ্যাপক সাজাদির গবেষণা থেকে জানা যায়, এ ধরনের ভাইরাস যে কোনো স্থানে বিস্তার লাভ করতে পারে। তবে আদ্রতা এবং তাপমাত্রা কম থাকলে ভাইরাস দ্রুত বিস্তার লাভ করতে পারে। বিশেষ করে তাপমাত্রা ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে ১১ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকলে ভাইরাস সহজেই ছড়িয়ে পড়তে পারে।

অপরদিকে, নতুন এক গবেষণা বলছে, আর্দ্রতা এবং তাপমাত্রা বাড়িয়ে করোনার বিস্তার কমানো সম্ভব। এটা বিশ্বের যে কোনো স্থানের জন্যই প্রযোজ্য। সম্প্রতি নতুন এক গবেষণায় এ তথ্য জানানো হয়েছে। তবে শুধুমাত্র আবহাওয়া পরিবর্তনের মাধ্যমেই এই ভাইরাসের প্রকোপ একেবারে বন্ধ করা সম্ভব নয় বলেও উল্লেখ করা হয়েছে।

চীনের বেইহাং এবং সিনঘুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক বলছেন, চীনের শতাধিক শহরে আবহাওয়া উষ্ণ এবং সেখানকার আদ্রতা বাড়তে থাকায় কোভিড-১৯য়ের প্রকোপ কমেছে।

এক গবেষক লিখেছেন, উচ্চ তাপমাত্রা এবং আদ্রতায় দেখা গেছে, তাৎপর্যপূর্ণভাবে কোভিড-১৯য়ের প্রকোপ কমছে। গণস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, উষ্ণ তাপমাত্রা, তাপ এবং আদ্রতা কেবলমাত্র ভাইরাসের প্রকোপ কমাতে পারে। কিন্তু এটা ভাইরাসের বিস্তার বন্ধ করতে পারে না।

চীনে যখন এই ভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছিল তখন সেখানকার তাপমাত্রা কম ছিল। চারদিকে ঠান্ডা আর কম তাপমাত্রার কারণে ভাইরাসের প্রকোপ খুব দ্রুত বৃদ্ধি পেয়েছে।

গত সপ্তাহ থেকে চীনে এই ভাইরাসের প্রকোপ কমতে শুরু করেছে। সেখানে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যাও কমছে। এটা দেশটির জন্য অনেক বেশ ইতিবাচক। কারণ এর মধ্যেই সেখানে বহু প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে।

গবেষকরা বলছেন, শীতকালীন আবহাওয়ায় ঠান্ডা, কাশি এবং জ্বরের মতো উপসর্গগুলো বেড়ে যায়। এ সময় ভাইরাস খুব সহজেই বিস্তার লাভ করতে পারে এবং শরীরে হানা দিতে পারে। কিন্তু তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেলে ভাইরাস দ্রুত বিস্তার লাভ করতে পারে না।

এর আগে এক গবেষণায় বলা হয়েছে, ৮৬ ডিগ্রি ফারেনহাইট তাপমাত্রায় করোনাভাইরাস টিকে থাকতে পারে না। চীনা গবেষকরা বলছেন, প্রতি ডিগ্রি তাপমাত্রা বৃদ্ধিতে করোনার প্রকোপ কমার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়।

অর্থাৎ তাপমাত্রা যত বাড়বে ভাইরাসের বৃদ্ধি তত ঠেকানো সম্ভব হবে। তবে শুধুমাত্র তাপএমাত্রা বাড়িয়েই এই ভাইরাসের বিস্তার একেবারে বন্ধ করা সম্ভব নয়।

সোনালীনিউজ/এইচএন

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue