রবিবার, ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কবলে আটকা পড়েছেন চঞ্চলসহ পুরো টিম

বিনোদন প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৯ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার ০৮:২১ পিএম

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কবলে আটকা পড়েছেন চঞ্চলসহ পুরো টিম

ঢাকা: বহুল আলোচিত ‘হাওয়া’ চলচ্চিত্রের শুটিং শুরু হয়েছিলো বঙ্গোপসাগরের একেবারে মধ্যখানে সেন্টমার্টিন দ্বীপে। হঠাৎ ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কবলে শুটিং নিয়ে রীতিমত অনিশ্চয়তায় নির্মাতা মেজবাউর রহমান সুমনসহ পুরো টিম।

বুলবুলের কারণে গত পরশু থেকেই প্রতিকূল পরিবেশের মধ্যে আছে ‘হাওয়া’ টিম। বৃহস্পতিবার থেকেই শুটিং বন্ধ রেখে হোটেল রুমে বসে থাকতে হচ্ছে তাদের।

এদিকে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে হঠাৎ সংকেত বেড়ে যাওয়ায় জাহাজ চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন। সে কারণে ঢাকায় আসারও ব্যবস্থা নেই। এমনটাই বলছিলেন নির্মাতা মেজবাউর রহমান সুমন।

শনিবার (৯ নভেম্বর) বিকেলে সুমন বলেন, তখনও আবহাওয়াবীদদের বরাতে সংবাদে বার বার বলা হচ্ছিলো মহা বিপদ সংকেতের কথা। জানানো হচ্ছিলো, শনিবার রাতে বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলে আঘাত হানতে পারে বুলবুল।

তাহলে কী অনিশ্চয়তার পথে সেন্ট মার্টিনে আটকে থাকতে হবে ‘হাওয়া’ টিমকে?

সুমন বললেন, এখানকার প্রশাসনদের সঙ্গেও আলাপ হয়েছে আমাদের। দেখি আজ রাতটা, এরপর আমরা সিদ্ধান্ত নেবো। অবস্থা একটু ভালো’র দিকে গেলে যেভাবে হোক শুটিং শেষ করে তবেই ঢাকায় ফিরতে চান নির্মাতা।

আর্টিস্ট-ক্রু মেম্বারসহ একশো’র বেশি মানুষ জড়িয়ে আছেন ‘হাওয়া’ চলচ্চিত্র নির্মাণের সঙ্গে। তারা সবাই এখন সেন্ট মার্টিনের একটি হোটেলে রয়েছেন।

কিন্তু এরকম প্রতিকূল অবস্থায় সেন্ট মার্টিনে থেকে যাওয়া রিস্ক হয়ে গেলো না? উত্তরে সুমন বলেন, অবশ্যই রিস্ক হয়েছে। কিন্তু এখান থেকেতো এই মুহূর্তে বেরিয়ে যাওয়ারও ব্যবস্থা নেই। জাহাজ, ট্রলারসহ সব ধরনের যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ।

হোটেলে আর্টিস্টদের মধ্যে আছেন অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী, শরিফুল রাজ ও নাজিফা তুষিসহ আরো অনেকে।

সোনালীনিউজ/এইচএন