বুধবার, ২১ আগস্ট, ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

চাঁদপুরে বাসের ধাক্কায় মামা-ভাগ্নি নিহত

চাঁদপুর প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১১ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার ১২:৫১ পিএম

চাঁদপুরে বাসের ধাক্কায় মামা-ভাগ্নি নিহত

চাঁদপুর: জেলার আশকাটি ইউনিয়নে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় এক ব্যাংক কর্মকর্তাসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো দুইজন। মঙ্গলবার (১১ জুন) সকালে চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের গাবতলী নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- এমরান হোসেন (৩৪) ও ফাতেমা আক্তার (১০)। এমরান হাজীগঞ্জ পৌর এলাকার বলাখাল গ্রামের সর্দার বাড়ির তাজুল ইসলামের ছেলে। তিনি গাজীপুর সোস্যাল ইসলামী ব্যাংকের (এসআইবিএল) কর্মকর্তা ছিলেন। আর ফাতেম একই এলাকার আলমগীর হোসেনের মেয়ে। তারা সম্পর্কে মামা-ভাগ্নি।

আহতরা হলেন- ফরিদগঞ্জ উপজেলার সুবিধপুর ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুর গ্রামের ভাষান চন্দ্র শীলের ছেলে রতন চন্দ্র শীল (৩০) ও জুয়েল হোসেন (৩৫)।

জানা গেছে, আজ সকাল ৭টায় চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের গাবতলী এলাকায় যাত্রীবাহী একটি বাস সিএনজিচালিত একটি অটোরিকশাকে ধাক্কা দিলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। তাদের মধ্যে ফাতেমা ও রতনের অবস্থা গুরুতর হওয়ার কারণে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ঢাকায় রেফার করা হয়। ঢাকায় নেয়ার পথে মতলব এলাকায় ফাতেমার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে স্থানীয়রা জানান, চাঁদপুর থেকে ছেড়ে আসা পদ্মা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস গাবতলী এলাকায় পৌঁছালে হাজীগঞ্জ থেকে চাঁদপুরের দিকে যাওয়া সিএনজিচালিত অটোরিকশাটিকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই অটোরিকশার যাত্রী এমরান নিহত হন। আহত হন আরো তিন যাত্রী। ঘটনার পরপরই ওই বাসটি দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে এবং অটোরিকশাচালক পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে চাঁদপুর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রেজাউল করিম বলেন, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহতের বাবা তাজুল ইসলাম থানায় এসে আবেদন করার পর মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।


সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue