মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট, ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬

চাচার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক, নবজাতককে নিচে ফেলে হত্যা করল কিশোরী!

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৬ মে ২০১৯, রবিবার ০৫:১৭ পিএম

চাচার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক, নবজাতককে নিচে ফেলে হত্যা করল কিশোরী!

সংগৃহীত

ঢাকা: রাজধানীর মিরপুরে নিজের সদ্যোজাত সন্তানকে পাঁচতলা থেকে নিচে ফেলে হত্যা করেছে জান্নাতুন নেছা নামের এক কিশোরী।

শনিবার (২৫ মে) মিরপুরের রূপনগর আবাসিক এলাকার ১০ নম্বর রোডের ১৮ নম্বর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ এ ঘটনায় অভিযুক্ত ওই কিশোরীর মাকে আটক করেছে।

রূপনগর থানা সূত্র জানায়, ওই বাসা থেকে জান্নাতুনকে আটকের পর সে স্বীকার করেছে, সে-ই আসলে বাচ্চাটির জন্ম দিয়েছে। জন্মের পরপরই বাথরুমের ভেন্টিলেটর দিয়ে সে নিজেই সদ্যোজাত সন্তানকে ফেলে দিয়েছে।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, মিরপুর ১০ নম্বর (রূপনগর আবাসিক এলাকা) রোডের ১৮ নম্বর বাড়ির ৫তলা থেকে দুপুর পৌনে ১২টার দিকে একটি শিশুকে বাথরুমের ভেন্টিলেটর দিয়ে নিচে ফেলে দেয়া হয়। নিচে পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই শিশুটি মারা যায়। এ সময় তার নাড়ি-ভুড়ি বের হয়ে মাথা ফেটে যায়।

তিনি আরও জানান, সদ্যোজাত শিশুটিকে যে বাথরুমের ভেন্টিলেটর দিয়ে নিচে ছুড়ে ফেলা হয়েছে, সেখানে এখনও রক্তের দাগ লেগে রয়েছে। মনে হয় বাচ্চাটি জন্মের সঙ্গে সঙ্গেই বাথরুমের ভেন্টিলেটর দিয়ে নিচে ফেলে দেয়া হয়েছে।

রূপনগর থানা পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেপ্তারের পর জান্নাতুন জানিয়েছে, সে এবার মনিপুরি স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। তার সঙ্গে দূরসম্পর্কের এক চাচার প্রেমের সম্পর্ক হয়। তার সঙ্গে অনৈতিক মেলামেশায় ওই বাচ্চাটি গর্ভে আসে। এ সম্পর্ক তার পরিবার মেনে নেবে না বলে বাচ্চাটিকে ৫ তলা থেকে ফেলে দিয়েছে।

এ বিষয়ে রূপনগর থানার উপ-পরিদর্শক পরিমল গণমাধ্যমকে জানান, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে সদ্যোজাত এক শিশুর মরদেহ দেখতে পাই, বাচ্চাটির মাথা ফেটে মগজ বের হয়ে গেছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সোনালীনিউজ/এমএইচএম

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue