রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৫ আশ্বিন ১৪২৭

চার ক্যাটাগরিতে ৩০ হাজার টাকা ঋণ পাচ্ছেন আইনজীবীরা

আদালত প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২০, বৃহস্পতিবার ০৫:৫৩ পিএম

চার ক্যাটাগরিতে ৩০ হাজার টাকা ঋণ পাচ্ছেন আইনজীবীরা

ঢাকা: করোনাভাইরাসের কারণে ঘোষিত সাধারণ ছুটিতে বিপাকে পড়া আইনজীবীদের এক বছরের জন্য বিনা সুদে সর্বোচ্চ ৩০ হাজার টাকা ঋণ দেবে ঢাকা আইনজীবী সমিতি (বার)।

বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) ঢাকা আইনজীবী সমিতির সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। আগামী সপ্তাহের সোম বা মঙ্গলবারের মধ্যে অঙ্গীকারনামা দিয়ে এক বছরের জন্য এই ঋণের টাকা নেয়া যাবে।

চার ক্যাটাগরিতে পাঁচ হাজার ৪৮৫ জন আইনজীবী এ ঋণ পাবেন। যাদের সদস্য হওয়ার বয়স ১ থেকে ৫ বছর, তারা পাবেন ২০ হাজার টাকা করে। এমন আবেদনকারী এক হাজার ৮০০ জন। যাদের সদস্য হওয়ার বয়স ৫ থেকে ২৫ বছর, তারা পাবেন ২৫ হাজার টাকা।

এমন আবেদনকারী দুই হাজার ৮৯০ জন। আর যাদের সদস্য হওয়ার বয়স ২৫ বছরের বেশি তারা পাবেন ৩০ হাজার টাকা। এমন আইনজীবী ৩৩৫ জন। আর যাদের বেনেভোলেন্ট ফান্ডে টাকা নেই, তারা পাবেন দশ হাজার টাকা। এমন আইনজীবী ৪৬০ জন।

ঢাকা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ইকবাল হোসেন বলেন, বিনা সুদে ঋণের জন্য সাত হাজার ৫১১ জন তালিকাভুক্ত সদস্য আবেদন করেছিলেন। এরমধ্যে অনেকে একাধিকবারও আবেদন করেছেন। যাচাই-বাছাই শেষে পাঁচ হাজার ৪৮৫ জন ঋণের জন্য বিবেচিত হয়েছেন। আমরা চার ক্যাটাগরিতে সদস্যদের এক বছরের জন্য ঋণ দেবো। ব্যাংকে আমাদের সমিতির অ্যাকাউন্টে টাকা রয়েছে। আমরা টাকার জন্য ব্যাংকে আবেদন করবো। ব্যাংক থেকে টাকা পেলে ক্যাশের মাধ্যমে সদস্যদের কাছ থেকে অঙ্গীকারনামা নিয়ে ঋণ দেয়া শুরু করবো। আশা করছি আগামী সপ্তাহের সোম বা মঙ্গলবারের মধ্যে আমরা টাকা দেয়া শুরু করতে পারবো।

এ বিষয়ে ঢাকা আইনজীবী সমিতির সহ-সাধারণ সম্পাদক সিকদার মোহাম্মদ আখতার উজ্জামান (হিমেল) ও গ্রন্থাগার বিষয়ক সম্পাদক মো. আতাউর রহমান খান রুকু বলেন, আজ সভায় আইনজীবীদের বিনা সুদে এক বছরের জন্য ঋণ দেয়ার জন্য সিদ্ধান্ত হয়েছে। ঋণের জন্য বিবেচিত আইনজীবীদের কাছ থেকে অঙ্গীকারনামা নিয়ে তাদের ক্যাশে টাকা দেয়া হবে।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে ২৪ মার্চ থেকে দেশের সব আদালত বন্ধ। ফলে বিপাকে পড়া আইনজীবীদের বিনা সুদে ঋণ দিতে ঢাকা বারের কার্যনির্বাহী কমিটি গত ১৩ এপ্রিল সিদ্ধান্ত নেয়। তাদের নির্দেশনা অনুসারে, ঋণ পাওয়ার জন্য ২০ এপ্রিল ছিল আবেদনের শেষ দিন। ঢাকা বারের ২৫ হাজার ২০৯ জন তালিকাভুক্ত সদস্যের মধ্যে ঋণ নেয়ার জন্য আবেদন করেন সাত হাজার ৫১১ জন।

সোনালীনিউজ/এইচএন

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue