শনিবার, ০৪ জুলাই, ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭

ছাত্রীদের ছাদে নিয়ে পর্নো দেখিয়ে কুপ্রস্তাব দিতেন প্রাথমিকের প্রধান শিক্ষক

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বুধবার ১১:৩৩ এএম

ছাত্রীদের ছাদে নিয়ে পর্নো দেখিয়ে কুপ্রস্তাব দিতেন প্রাথমিকের প্রধান শিক্ষক

বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের পর্নো ছবি দেখানো এবং যৌন হেনস্তার অভিযোগে গিয়াস উদ্দিন নামের এক প্রধান শিক্ষককে পুলিশে দিয়েছেন এলাকাবাসী।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার মাইজবাড়ি এলাকা থেকে ওই প্রধান শিক্ষককে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

গিয়াস উদ্দিন শহরের বিলপাড় এলাকার বাসিন্দা। তিনি মাইজবাড়ি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, মাইজবাড়ি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির চার ছাত্রীকে কিছুদিন ধরে নানা অজুহাতে বিদ্যালয়ের ছাদে নিয়ে যেতেন প্রধান শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন। সেখানে তাদের মোবাইলে পর্নো ছবি দেখাতেন তিনি। পর্নো ছবি না দেখলে পরীক্ষায় ফেল করিয়ে দেয়াসহ নানা ভয়ভীতি দেখাতেন।

মঙ্গলবারও চার ছাত্রীর মধ্যে দুই ছাত্রীকে ছাদে নিয়ে পর্নো ছবি দেখানোর চেষ্টা করেন প্রধান শিক্ষক। অন্য দুই ছাত্রী বিষয়টি তাদের অভিভাবকদের জানান। পরে স্থানীয়রা বিদ্যালয় ঘেরাও করে ওই শিক্ষককে মারধর করেন। খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে উদ্ধার করে তাদের হেফাজতে নেন।

অভিভাবকরা বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন নানা অজুহাতে ছাত্রীদের ছাদে নিয়ে খারাপ ছবি দেখাতেন। হাত ধরে টানাটানি করতেন। ছবি না দেখলে নানাভাবে হয়রানি করতেন। মঙ্গলবার একই কাজ করলে স্থানীয়দের নিয়ে বিদ্যালয় ঘেরাও করা হয়।

সদর থানার ওসি সহিদুর রহমান জানান, বিদ্যালয়ের শিক্ষককে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। ছাত্রীদের পরিবারের লোকজন অভিযোগ দেয়ার জন্য থানায় এসেছেন।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/এসএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue