সোমবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ৫ কার্তিক ১৪২৬

ছাড়েনি বাড়িওয়ালা, তার ছেলে, এমনকি প্রতিবেশী নাবালক ছেলেটিও!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার ০৮:০৮ পিএম

ছাড়েনি বাড়িওয়ালা, তার ছেলে, এমনকি প্রতিবেশী নাবালক ছেলেটিও!

ঢাকা: ধর্ষণ! এই একটি শব্দ যেন বিশ্বব্যাপী মহামারি আকারে ধারণ করেছে। ধর্ম-বর্ণ, নবীন-প্রবীণ কেউ বাদ দিচ্ছেন না। এমনি ধর্মীয় শিক্ষাগুরুরাও বাদ নেই। কোথায় যাবে অবলা নারী জাতি। এই যেন সেই জাহেলী যুগের নতুন আবির্ভাব।  শিশু ও কিশোরীদের ওপরে যৌন নির্যাতনের ঘটনাগুলো ক্রমবর্ধমান হারে বেড়ে চলেছে গত প্রায় এক দশক ধরে। 

কিন্তু গত তিন বছরে সংখ্যাটা লাফিয়ে বেড়েছে। সম্প্রতি সময়ে এমন বেশ কিছু কিশোরী ধর্ষণের ঘটনা সামনে এসেছে, যা রীতিমতো শিহরণ জাগানো। ভারতের মধ্যপ্রদেশের তুকোগঞ্জে প্রায় দেড় বছর ধরে ১৬ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আর এই ঘটনায় এক নাবালকসহ ছয় জনকে গত শনিবার গ্রেফতার করেছে মধ্যপ্রদেশ পুলিশ। ধর্ষণে অভিযুক্তদের মধ্যে রয়েছে সেখানকার স্থানীয় এক ক্যাটারার, তার ছেলে ও দুই ভাইপো।

ওই কিশোরীর জীবনে অত্যাচারের সূত্রপাত হয়, তার মায়ের মৃত্যুর পর থেকে। ২০১৮-র মার্চ মাস, যখন ওই কিশোরী নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিল তখন তাঁর মায়ের মৃত্যু হয়। যার জেরে হস্টেল থেকে পড়াশোনায় ইতি টেনে বাবা ও বোনের সঙ্গে থাকতে শুরু করে সে। তার বাবা ওই এলাকার একটি কর্মাশিয়াল বিল্ডিংয়ে নিরাপত্তারক্ষীর কাজ করেন।

এক দিন মেয়েটির বাবা যখন কোনও কাজে বাইরে গিয়েছিলেন তখন ওই বিল্ডিংয়ের পাশে থাকা ৫০ বছরের ওই কেটারার কনট্রাক্টর কিশোরীকে তার বাড়িতে ডাকে টাকার বদলে বাড়ির ছোট ছেলে-মেয়েদের দেখাশোনার জন্য। এর পর মোবাইলে পর্ন দেখিয়ে বেশ কয়েকবার কিশোরীকে ধর্ষণ করে ওই ব্যক্তি। আইন নিয়ে পড়াশোনা করা তার ২৩ বছরের ছেলেও ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে বিষয়টি প্রকাশ্যে আনার ভয় দেখিয়ে।

এই সকল ঘটনার কয়েক সপ্তাহ পরে নিজের স্কুলের এক বন্ধুকে ফোন করার জন্য ওই ক্যাটারারের ১৬ বছরের ভাইপোর থেকে ফোন চায় নির্যাতিতা কিশোরী। কিন্তু ওই নাবালকও ধর্ষণ করে ওই কিশোরীকে। স্কুলের বন্ধুকে ফোন করার কথা মেয়েটির বাবাকে বলে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করে ওই নাবালক। এমনকি তার ভাইও ধর্ষণ করে ওই কিশোরীকে।

এই সব ঘটনার কথা জানতে পারে ওই কিশোরীর দুই প্রতিবেশী। তারাও গোটা ঘটনার কথা ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করে। এই সব অত্যাচার যখন কিশোরীর সহ্যের বাইরে চলে গেল, তখন সে সব কথা খুলে বলে তার বাবাকে। তার পর বাবা ও মেয়ে মিলে গোটা ঘটনা জানায় পুলিশের কাছে। তাদের অভিযোগের ভিত্তিতেই পুলিশ গ্রেফতার করেছে ওই ছয়জনকে।

তুকোগঞ্জ পুলিশ স্টেশনের অফিসার তাহজেব কাজি বলেছেন, ‘ক্যাটারার, তার ছেলে ও ১৬ ও ১৮ বছরের তার দুই ভাইপোকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রতিবেশী আরও দু’জনকেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ।’ অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদ চালানো হচ্ছেও জানিয়েছেন তিনি। সূত্র: আনন্দবাজার।

সোনালীনিউজ/এইচএন

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue